জীবনযুদ্ধে জিতে বাড়ি ফিরছেন খাদিজা

প্রকাশ : ২৬ নভেম্বর ২০১৬, ১৩:১৩ | আপডেট : ২৬ নভেম্বর ২০১৬, ১৩:২০

অনলাইন ডেস্ক
ADVERTISEMENT

ছাত্রলীগ নেতা বদরুলের চাপাতির আঘাতে আহত ছাত্রী খাদিজা বেগম নার্গিস বলেছেন, আপনাদের দোয়ায় আমি সুস্থ আছি, ভালো আছি। আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন। আজ হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাচ্ছি। শনিবার রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতাল থেকে সংবাদ সম্মেলন করে ছাড়পত্র পাওয়ার সময় এসব কথা বলেন খাদিজা। স্কয়ার হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ইমার্জেন্সিতে খাদিজা ছিলেন অচেতন। তার বাঁচার সম্ভাবনা ছিল ক্ষীণ। ডা. এম রেজাউল সাত্তারের নেতৃত্বে তার গুরুত্বপূর্ণ সার্জারিটি করা হয়। অবস্থা পর্যায়ক্রমে উন্নতির দিকে গেলে ০৮ নভেম্বর কেবিনে স্থানান্তর করা হয় খাদিজাকে।

চিকিৎসকরা জানান, সে এখন নিজে খেতে পারে। লেখা পড়তে পারে। তার ফিজিওথেরাপি দরকার। তাকে ভাল ফিজিওথেরাপির জন্য রেফার করা হবে। এর আগে গত ৩ অক্টোবর সিলেট এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগ নেতা বদরুল আলমের চাপাতির কোপে গুরুতর আহত হন খাদিজা। প্রথমে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির পর সেখান থেকে ৪ অক্টোবর তাকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে এনে লাইফ সাপোর্ট দিয়ে রাখা হয়।

স্কয়ার হাসপাতালে প্রথম দফায় নার্গিসের মাথায় ও পরে হাতে অস্ত্রোপচার করা হয়। তার অবস্থার একটু উন্নতি হলে লাইফ সাপোর্ট খুলে দেওয়া হয়। এরপর আইসিইউ থেকে এইএসডিইউ-তে স্থানান্তর করা হয়। সেখান থেকে ২৬ অক্টোবর তাকে কেবিনে নেওয়া হয়। এরপর আবারও মাথায় ও হাতে অস্ত্রোপচার করা হয়। উল্লেখ্য, গত ৩ অক্টোবর শাবি ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক বদরুল আলম সিলেট এমসি কলেজের পুকুর পাড়ে সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে।