মেহেরপুরে খোকন হত্যা মামলায় পাঁচজন আটক

প্রকাশ : ০১ ডিসেম্বর ২০১৬, ০০:০০

মেহেরপুর প্রতিনিধি
ADVERTISEMENT

পুলিশের সোর্স ও মেহেরপুরের ইজিবাইকচালক খোকন মিয়া হত্যাকান্ডের মূল আসামিসহ পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ। উদ্ধার করা হয়েছে খোকনের মোবাইল ও ইজিবাইকটি। গত মঙ্গলবার রাতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে মেহেরপুর থানা পুলিশ। গতকাল বুধবার দুপুরে পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান প্রেস কনফারেন্সে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। আটককৃতরা হলো সদর উপজেলার গোপালপুর গ্রামের আলমগীর হোসেন, রামনগর গ্রামের মামুন হোসেন ও ওয়াসিম মিয়া (২৪), কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার খলিশাকুন্ডি গ্রামের ফিরোজ আলী ও কাবুল হোসেন । খোকন মিয়া মেহেরপুর জেলা শহরের হোটেল বাজারের আবদুল জলিল খার ছেলে।

প্রেস কনফারেন্সে পুলিশ সুপার জানান, ইজিবাইক ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যেই মেহেরপুর শহরের হোটেল বাজার এলাকার ইজিবাইক চালক খোকনকে হত্যা করে টেংরামারী গ্রামের মাঠে লাশ ফেলে যায়। নিয়ে যায় ইজিবাইকসহ খোকনের মোবাইল। বিষয়টি আটককৃতরা স্বীকার করেছে বলেও জানানো হয়। এ সময় নিহত খোকনের স্ত্রী রোকেয়া আক্তার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ, সহকারী পুলিশ সুপার শেখ মোস্তাফিজুর রহমান, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল বাহার চৌধুরী, ওসি-তদন্ত মেহেদি হাসান এবং খোকন হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই রফিকুল ইসলাম।

উল্লেখ্য, গত ২৮ অক্টোবর সকালে সদর উপজেলার টেংরামারী গ্রামের মাঠের সড়কে খোকন মিয়ার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতের পিতা আব্দুল জলিল খাঁ বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামিদের নামে সদর থানায় হত্যা মামলা করেছিলেন। খোকন একসময় মাদকাসক্ত ছিল। পুলিশের সোর্স হিসেবেও দীর্ঘদিন কাজ করে। বছরখানেক আগে মাদক ছেড়ে সে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে ইজিবাইকচালক পেশায় ফিরে আসে।

"