সিলেটে খাদিজা হত্যাচেষ্টা

বদরুলের বিচার শুরুর নির্দেশ আদালতের

প্রকাশ : ৩০ নভেম্বর ২০১৬, ০০:০০

সিলেট প্রতিনিধি
ADVERTISEMENT

সিলেটের কলেজছাত্রী খাদিজা বেগম নার্গিস হত্যাচেষ্টা মামলায় ছাত্রলীগ নেতা বদরুল আলমের বিচার শুরুর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

সিলেটের মুখ্য মহানগর হাকিম সাইফুজ্জামান হিরো গতকাল মঙ্গলবার আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে সাক্ষ্য শুরুর জন্য দিন ধার্য করে দেন। এ আদালতের অতিরিক্ত পিপি মাহফুজুর রহমান জানান, আগামী ৫ ডিসেম্বর বাদীর জবানবন্দির মধ্য দিয়ে সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু হবে।

আসামি বদরুলের পক্ষে তার আইনজীবী সাজ্জাদুর রহমান এদিন জামিনের আবেদন করলে আদালত তা নাকচ করে দেন। গত ৩ অক্টোবর সিলেটের এমসি কলেজ কেন্দ্রে স্নাতক পরীক্ষা দিয়ে বের হয়ে হামলার শিকার হন সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের স্নাতক (পাস কোর্স) দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী খাদিজা। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তার মাথার খুলি ভেদ করে মস্তিষ্ক জখম হয়।

ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে তিন দফা অস্ত্রোপচারের পর অনেকটা সুস্থ হয়ে ওঠেন খাদিজা। শরীরের বাঁ-পাশ স্বাভাবিকভাবে সাড়া না দেওয়ায় চিকিৎসার জন্য স্কয়ার থেকে গত সোমবার তাকে পাঠানো হয় সাভারের সিআরপিতে।

খাদিজার ওপর হামলাকারী বদরুল শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র ও বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক ছিলেন। তাকে ঘটনাস্থল থেকে ধরে তখনই পুলিশে দেয় জনতা। ঘটনার পরদিন খাদিজার চাচা আবদুুল কুদ্দুস বাদী হয়ে শাহপরান থানায় মামলা করেন। বদরুলকে বিশ্ববিদ্যালয় ও সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়।

মামলার তদন্তে নেমে খাদিজাকে কোপানোর ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করে পুলিশ। বদরুল নিজেও অপরাধ স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শাহপরান থানার এসআই হারুনুর রশিদ ৮ নভেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দেন। সেখানে ৩৬ জনকে সাক্ষী করা হয়।

"