খাগড়াছড়িতে কাদের

আগামী নির্বাচনের আগেই শান্তিচুক্তির ৯০ শতাংশ বাস্তবায়ন হবে

প্রকাশ : ৩০ নভেম্বর ২০১৬, ০০:০০

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি
ADVERTISEMENT

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগেই পার্বত্য শান্তিচুক্তির নব্বই শতাংশ বাস্তবায়ন করা হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলা সদরে রামগড়-ঢাকা সড়কে নির্মাণাধীন একটি সেতু পরিদর্শন এবং উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক সংবর্ধনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেছেন, ‘আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগেই পার্বত্য শান্তিচুক্তির নব্বই শতাংশ বাস্তবায়ন করা হবে। দীর্ঘদিনের সংঘাত ও পাহাড়ের কান্নার অবসান ঘটাতেই জননেত্রী শেখ হাসিনা জনসংহতি সমিতির প্রধান সন্তু লারমার সঙ্গে শান্তি চুক্তি সম্পাদন করেন। ইতোমধ্যে পার্বত্য ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশন কাজ শুরু করেছে। আমাদের সরকার শান্তিচুক্তির প্রতিটি বিষয় অক্ষরে অক্ষরে বাস্তবায়ন করবে।’

বিএনপি-জামায়াতের দিকে ইঙ্গিত করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘তারা হত্যার রাজনীতিতে বিশ্বাস করে। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে না গিয়ে তারা কর্মসূচির নামে পেট্রলবোমা দিয়ে শত শত মানুষকে হত্যা করেছে। বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য বিদেশিদের দিকে তাকিয়ে থাকে। কিন্তু এ দেশের জনগণই নির্ধারণ করে কোন দল ক্ষমতায় যাবে।’

বিএনপি-জামায়াত আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে বিদেশি প্রভুদের কাছে নালিশের রাজনীতি শুরু করেছে বলেও এ সময় মন্তব্য করেন তিনি। রামগড় উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক শাহ আলম মজুমদারের সভাপতিত্বে রামগড় বাসস্টেশনে অনুষ্ঠিত এ সভায় বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম, সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য দীপংকর তালুকদার, খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, রাঙ্গামাটির নারী সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী এবং খাগড়াছড়ি জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জাহেদুল আলম।

ওবায়দুল কাদের বলেন, পার্বত্য তিন জেলায় শান্তিচুক্তির আগে ও পরের অবস্থা পাল্টে গেছে। খাগড়াছড়ি-ফটিকছড়ি সড়কের ১৮টি সেতুর নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে। খাগড়াছড়িতে আরো ৪৩টি সেতুর নির্মাণকাজ এগিয়ে চলছে। মহালছড়ি-সিন্দুকছড়ি সড়কটি সেনাবাহিনীকে দেওয়া হয়েছে। মাটিরাঙ্গা-তানাক্কাপাড়া সড়কের ৩৫ কিলোমিটার সড়ক ১২ কোটি টাকা ব্যয়ে সংস্কার করা হয়েছে। এরপর মন্ত্রী রামগড় কেন্দ্রীয় কবরস্থানে আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদের প্রয়াত সদস্য সুলতান আহমেদের কবর জেয়ারত করেন। পরে বিকেলে খাগড়াছড়ি স্টেডিয়ামে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত গণসংবর্ধনা সভায় যোগ দেন।

"