জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

অনার্স চতুর্থ বর্ষ পরীক্ষায় ফলে ত্রুটি তদন্তে কমিটি

প্রকাশ : ২৮ নভেম্বর ২০১৬, ০০:০০

গাজীপুর প্রতিনিধি
ADVERTISEMENT

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৪ সালের অনার্স চতুর্থ বর্ষের ফলে আংশিক ত্রুটির ঘটনায় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (একাডেমিক) প্রফেসর ড. মো. হাসান বাবুর নেতৃত্বে তিন সদস্যের ওই কমিটি বিষয়টি তদন্ত করবেন। কীভাবে এ ত্রুটি ঘটল তা খতিয়ে দেখার জন্য তদন্ত কমিটিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ওই কমিটির রিপোর্টের ভিত্তিতে পরে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আর প্রকাশিত ফলে অনিচ্ছাকৃত ত্রুটির জন্য জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সংশ্লিষ্ট সবার কাছে আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশও করছে।

গতকাল রোববার বিকালে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার মোল্লা মাহফুজ আল-হোসেন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৭ সেপ্টেম্বর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৪ সালের অনার্স চতুর্থ বর্ষের ফলে আংশিক ত্রুটি পরিলক্ষিত হলে গত ২৪ নভেম্বর তা সংশোধনপূর্বক প্রকাশ করা হয়েছে। ফল প্রস্তুতের ক্ষেত্রে প্রযুক্তিগত ত্রুটির কারণে প্রকাশিত ফলে কিছু পরীক্ষার্থীর ফল ভুল আসায় কর্তৃপক্ষের গোচরীভূত হওয়া মাত্রই তা সংশোধন করা হয়েছে। ত্রুটি সংশোধনের ফলে ওই পরীক্ষায় ১ লাখ ২৩ হাজার পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রায় নয় হাজার পরীক্ষার্থীর ফলে কিছুটা ভিন্নতা এসেছে এবং পাঁচ হাজারের অধিক পরীক্ষার্থীর জিপিএ বৃদ্ধি পেয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ উল্লেখ করে, পরীক্ষার ফল প্রকাশ ও সংশোধন একটি চলমান প্রক্রিয়া। আর পরীক্ষার ফল প্রকাশ করার সময় এটি উল্লেখ থাকে যে কর্তৃপক্ষ প্রয়োজনে যেকোনো সময় প্রকাশিত ফল বাতিল ও সংশোধন করার এখতিয়ার সংরক্ষণ করে। শত সতর্কতা সত্ত্বেও কখনো ভুলত্রুটি হওয়া অস্বাভাবিক নয় এবং তা দৃষ্টিতে আসা মাত্রই সংশোধন করা কর্তৃপক্ষের দায়িত্ব।

"