উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বাবার পা কেটে ফেলা

প্রতিবেদন দিতে সময় নিল রাষ্ট্রপক্ষ

প্রকাশ : ২৮ নভেম্বর ২০১৬, ০০:০০

আদালত প্রতিবেদক
ADVERTISEMENT

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে ‘মেয়েকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায়’ বর্গাচাষি শাহানূর বিশ্বাসের ওপর হামলাকারীদের গ্রেফতার করা হয়েছে কি নাÑসে প্রতিবেদন দিতে আরো দুই দিন সময় পেয়েছে রাষ্ট্রপক্ষ।

গতকাল রোববার ওই প্রতিবেদন দেওয়ার নির্ধারিত দিনে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাস আসামিদের কারাবন্দি কথা মৌখিকভাবে আদালতকে জানিয়ে সময়ের আবেদন করেন। পরে বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর হাইকোর্ট বেঞ্চ দুই দিন সময় দিয়ে ২৯ নভেম্বর বিষয়টি পরবর্তী আদেশের জন্য রাখে।

গত ১৬ অক্টোবর ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ থানার নলভাঙ্গা গ্রামের বর্গাচাষি শাহানূর বিশ্বাসকে লোহার শাবল, হাতুড়ি ও ছেনি দিয়ে মেরে গুরুতর আহত করা হয়। জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানে (পঙ্গু হাসপাতাল) চিকিৎসাধীন শাহানূরের দুটি পা হাঁটুর ওপর থেকে কেটে ফেলতে হয়েছে। পরিবারের অভিযোগ, মেয়েদের উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন শাহানূর। এ কারণে সাবেক ইউপি সদস?্য মাহবুবুর রহমানের লোকজন তার এই হাল করেছে।

ওই ঘটনায় শাহানূরের আত্মীয় মো. ইয়াকুব আলী সাতজনের বিরুদ্ধে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে অভিযোগ করেন। শাহানূরের ছোট ভাই সামাউল ইসলাম ১৬ জনকে আসামি করে থানায় মামলা করেন।

এ বিষয়ে পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন আমলে নিয়ে গত ২২ নভেম্বর স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে আদেশ দেয় হাইকোর্টের ওই বেঞ্চ। হামলাকারীদের ৭২ ঘণ্টার ভেতর কারাবন্দি করার নির্দেশ দিয়ে ২৭ নভেম্বরের মধ্যে তা প্রতিবেদন আকারে আদালতে জমা দিতে ঝিনাইদহের পুলিশ সুপারকে নির্দেশ দেওয়া হয়।

"