যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ

প্রকাশ : ২৮ নভেম্বর ২০১৬, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক
ADVERTISEMENT

ঢাকার সাভার থানার সীমান্তবর্তী এলাকায় বুড়িগঙ্গা নদীতে একটি আবাসিক প্রকল্প নির্মাণকাজে থাকা লোকজনের ওপর আদাবরের এক যুবলীগ নেতা হামলা চালিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে আদাবর থানা যুবলীগের আহ্বায়ক আরিফুর রহমান তুহিন এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

গতকাল রোববার দুপুরে আমিনবাজার ইউনিয়ন ও আদাবরের সীমানায় সিলিকন সিটি নামের একটি আবাসিক প্রকল্প এলাকায় ওই হামলার ঘটনা ঘটে বলে আহত ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন মো. হাবুল হোসেন নামে এক ব্যক্তি ওই ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলে দাবি করেছেন। হাসপাতালে তিনি বলেন, তারা ওই আবাসিক প্রকল্প এলাকায় মাটি ভরাটের কাজ করছিলেন।

‘দুপুর পৌনে ১টায় তুহিনের নেতৃত্বে ৩০-৪০ জন সশস্ত্র সন্ত্রাসী প্রকল্প এলাকায় অতর্কিতভাবে এসে এলোপাতাড়ি গুলি করে ও চাপাতি দিয়ে লোকজনকে কোপায়।’ হাবুল বলেন, হামলায় তার বুকে ও হাতে গুলি লেগেছে; আহত হয়েছেন জুয়েল, নয়ন, ইনসানসহ বেশ কয়েকজন।

পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেন বলে জানান তিনি। এ বিষয়ে যুবলীগ নেতা তুহিন বলেন, ‘ঘটনাটি আমি শুনেছি। তবে এর সঙ্গে আমি জড়িত নই। ওই সময়ে আমি অফিসে ছিলাম। আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনা হচ্ছে।’

স্থানীয় একাধিক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, প্রকল্প এলাকা থেকে লোকজনদের ছত্রভঙ্গ করে দেওয়ার পর হামলাকারীরা সেখানে অবস্থান করছিল। তারপর র‌্যাবের একটি দল সেখানে গেলে তারা এলাকা ত্যাগ করে। আমিনবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বলেন, ওই প্রকল্প এলাকাটি বুড়িগঙ্গার নদীর ভেতর বড় বড়দেশি মৌজা এলাকার মধ্যে পড়েছে। সাভার মডেল থানার ওসি কামরুজ্জামান জানান, এ ধরনের কোনো হামলার খবর তিনি জানেন না। কেউ তার কাছে অভিযোগও করেননি। এ বিষয়ে র‌্যাব-২-এর অধিনায়ক মো. আজাদ হোসেন বলেন, ‘ঘটনার খবর পেয়ে র‌্যাবের একটি দল সেখানে গিয়েছে। এ ব্যাপারে খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে।’

"