কালিয়াকৈরে জাল দলিলের মাধ্যমে কোটি টাকার জমি হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টা

প্রকাশ : ০১ ডিসেম্বর ২০১৬, ০০:০০

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি
ADVERTISEMENT

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলায় ভূমিদস্যু চক্র আবার সক্রিয় হয়ে উঠেছে। কালিয়াকৈর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে এসব ভূয়া জাল দলিল তৈরি করে জালিয়াত চক্র কোটি-কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, গত ২৭ অক্টোবর কালিয়াকৈর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে উপজেলার বাগাম্বর এলাকার ভূমি জালিয়াত চক্রের দুই সদস্য মৃত.হাচেন আলীর ছেলে আব্দুর রশিদ ও নেহাজ উদ্দিনের ছেলে আফসার আলী বাগাম্বর মৌজার কয়েকটি দাগের ৩৮ শতাংশ জমি তাদের নিজ নামে গ্রহিতা দেখিয়ে একটি আমমোক্তার (পাওয়ার) নামা দলিলরেজিস্ট্রি করেন। এতে দলিল দাতা হিসেবে উপজেলার বাশতলী এলাকার মৃত গগন চন্দ্র দাসের ছেলে মধুসুদন দাসের নাম উল্লেক করা হয় এবং দাতা হিসেবে তাকে সনাক্ত করেন ওই এলাকার আরেক প্রতারক আবুল বাশার।

পরে বিষয়টি এলাকাবাসী ও প্রকৃত জমির মালিকগণের মধ্যে জানাজানি হলে তারা এর প্রতিবাদ করেন এবং সাব-রেজিস্টারকে অবগত করেন।

পরে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে ওই দলিলে উল্লেখিত দাতা মধুসুদন দাস প্রায় ৩০ বছর পূর্বে তার সব সম্পত্তি বিক্রি করে স্ব-পরিবারে পার্শ্ববতী দেশ ভারতে চলে যান।

এক পর্যায়ে এ জালিয়াত চক্রের সদস্যরা জমি তাদের নামে টিকাতে না পেরে ভূয়া দলিল দাতা মধুসুদন দাসকে টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার থেকে ডেকে এনে কালিয়াকৈর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে আবেদনের মাধ্যমে দলিলটি বাতিল করে। এ বিষয়ে কালিয়াকৈর দলিল লেখক সমিতির সাধারন সম্পাদক মোঃ আজিজুর রহমান জানান, ভূল বুঝাবুঝির কারণে একটি আম-মোক্তার নামা জাল দলিল হয়েছিল পরে দলিলটি পন্ড করা হয়।

কালিয়াকৈর সাব-রেজিস্টিার আনোয়ারা বেগম জানান, কাজে ব্যস্ত আছি ,অন্যদিন আসেন কথা বলবো।

"