বাবার হাতে ছেলে খুন ভাইয়ের হাতে ভাই

প্রকাশ : ৩০ নভেম্বর ২০১৬, ০০:০০

পটুয়াখালী প্রতিনিধি
ADVERTISEMENT

পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা উপজেলার ইসলামবাগে স্ত্রী সাথে বিকবিত-ার একপর্যায় ক্ষিপ্ত হয়ে বাবা তার শিশু সন্তান মোঃ হাছিব মৃধাকে হত্যার করেছেন। এ ঘটনায় স্থানীয়রা ঘাতক বাবাকে আটক করে সংশ্লিষ্ট পুলিশে সোর্পদ করেন। গতকাল মঙ্গলবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল সকালে গলাচিপা উপজেলার পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের ইসলাম বাগের বাসিন্দা মোঃ লাবলু মৃধার সাথে বাকবিত-া বাঁধে তার স্ত্রী সামসুন্নাহার আলো বেগমের সাথে। বাকবিত-ার এক পর্যায় লাবলু উত্তেজিত হয়ে তার ঘুমান্ত শিশু সন্তান মো. হাছিব মৃধার মাথায় পাটার শিল (পুতা) দিয়ে আঘাত করেন। এতে রক্তক্ষরণ হয়ে ঘটনাস্থলেই হাছিব মারা যায়।

এ সময় স্থানীয়রা টের পেয়ে ঘাতক পিতাকে পুলিশের হাতে তুলে দেন। পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে পটুয়াখালী মর্গে প্রেরণ করেন। এ দিকে মা সামসুন্নাহার আলো বেগম বাদী হয়ে গলাচিপা থানায় তার স্বামীর বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

অপর একটি ঘটনায়, গলাচিপা উপজেলায় ভাইয়ের হাতে ভাই খুনের ঘটনা ঘটেছে। উপজেলার আমখোলা ইউনিয়নের দড়ি বাহেরচর গ্রামে দুই ভাইয়ের মধ্যে পারিবারিক বিরোধের ঘটনায় বড় ভাইয়ের লাঠির আঘাতে ছোট ভাই মারা গেছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

গলাচিপা থানার পুলিশের এসআই সুদেব জানান, গত সোমবার সকালে উল্লেখিত গ্রামের মো. মোসলেম হাওলাদারের দুই ছেলে মো. নয়ন হাওলাদার এবং আব্দুর রহিম হাওলাদারের মধ্যে পরিবারিক বিরোধকে কেন্দ্র করে ঝগড়া হয়। এ সময় বড় ভাই নয়ন ছোট ভাই রহিম এর মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করে। রহিমকে হাওলাদারকে গুরুত্বর অবস্থায় বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল মঙ্গলবার বিকেল ৪টায় রহিম হাওলাদার মারা যায়।

"