চোরাচালানিদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নারীসহ আহত ৮

প্রকাশ : ২৮ নভেম্বর ২০১৬, ০০:০০

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি
ADVERTISEMENT

চোরাচালানি মালামাল বিজিবি দিয়ে ধরিয়ে দেওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে বেনাপোল সীমান্তে দু‘দল চোরাচালানির সংঘর্ষে দুই নারীসহ আটজন আহত হয়েছে। স্থানীয়রা তাদের মধ্যে গুরুতর আহত সাতজনকে উদ্ধার করে প্রথমে শার্শা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করেছে। গত শনিবার রাতে ভারত সীমান্তবর্তী এলাকা বেনাপোল পোর্ট থানার বড়আঁচড়া দক্ষিনপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন, বেনাপোল পোর্ট থানার বড়আঁচড়া দক্ষিনপাড়া গ্রামের সুভাসের ছেলে চোরাকারবারী সুমন (৩২), সুজন (৩০), পলাশ (২৮) ও শিমুল (২৩)। অপর পক্ষের আহতরা হচ্ছে একই গ্রামের চোরাকারবারী আবুল কাশেমের ছেলে কালু (৪৫), ইমাদুল (৪০), ইমাদুলের স্ত্রী রোকসানা (৩০) ও মেয়ে রিমা (২২)।

স্থানীয়রা জানান, আহতরা সকলে চোরাচালানী পেশার সাথে জড়িত। চোরাকারবারি সুজনের চোরাচালানী পণ্য কালু নামে আর এক চোরাচালানী বিজিবির হাতে ধরিয়ে দিয়েছে। এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে গত দুই দিন ধরে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। শনিবার সকালে তাদের মধ্যে এ নিয়ে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বেধে যায়। এতে দুই পরিবারের ৮ নারী, পুরুষ ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর জখম হয়। পরে প্রতিবেশিরা তাদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়।

বেনাপোল পোর্ট থানার এস আই আশরাফ জানান, এ ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কোন পক্ষ পুলিশের কাছে অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

"