সাতবাড়ীয়া-চিনাখরা সড়কের একি হাল

প্রকাশ : ২৮ নভেম্বর ২০১৬, ০০:০০

পাবনা প্রতিনিধি
ADVERTISEMENT

বন্যা-পরবর্তী সংস্কারের কাজ শুরু না করায় সাতবাড়ীয়া-চিনাখরা রাস্তাটির বেহাল অবস্থা বিরাজ করছে। গত বন্যা ও অতিবৃষ্টির কারণে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এ রাস্তাটি। ফলে সুজানগর উপজেলার ২২টি গ্রামের মানুষের উপজেলাসহ গুরুত্বপূর্ণ এলাকার সাথে যোগাযোগ বিঘিœত হচ্ছে। সকল প্রকার যানবাহন বন্ধ থাকায় তিনটি ইউনিয়নের মানুষ উপজেলা সদরের সাথে যোগাযোগ করতে বিকল্প পথ বেছে নিতে বাধ্য হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিল হিসেবে খ্যাত গাজনার বিলের মধ্য দিয়ে ১৫ কোটি টাকা ব্যায়ে ২০১০ সালে এলজিইডি ১০ কিলোমিটার রাস্তা সংস্কার করে। এ রাস্তাটি দিয়ে সাতবাড়ীয়া, নিশ্চিতপুর, কুড়িপাড়া, কাকিয়ান, শ্যামনগর, ভাটপাড়া, নারুহাটি ১৫টি গ্রামের প্রায় ৫০ হাজার মানুষ ঢাকার সাথে সহজ যোগাযোগ রক্ষা করে থাকে। এ ছাড়া ওই গ্রাম ছাড়াও দুলাই ইউনিয়নের দুলাই, বদনপর, শান্তিপুর চিনাখড়াসহ ৭ গ্রামের লোকজনের চলাচলের দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। বিলের ভিতর এ সরু রাস্তাটি দিয়ে মুলত মাইক্রোবাস, মিনিবাস, নছিমন-করিমন সিএনজি ও ব্যাটারীচালিত অটো রিক্সা চলাচল করে থাকে। বর্তমানে রাস্তাটির বিভিন্ন অংশে ভেঙ্গে যাওয়ায় এ সব যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। মানুষের চাহিদার কারনে দু চারটি ব্যাটারী চালিত ও নছিমন করিমন চললেও সেটা ঝুকি নিয়ে চলছে।

এ ব্যাপারে এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী আ. রশীদ জানান, গাজনার বিলের ভিতর দিয়ে যে সড়কটি করা হয়েছে সাম্প্রতিক বন্যায় ঢেউয়ের তোড়ে অনেক জায়গার ভেঙ্গে গেছে। এ ব্যাপারে সুজানগর উপজেলা প্রকৌশলীকে প্রতিবেদন দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রতিবেদন পেলে জনস্বার্থে কাজটি দ্রুত শেষ করার ব্যবস্থা করা হবে।

"