গলাচিপায় শীতবস্ত্র কেনার হিড়িক

প্রকাশ : ২৭ নভেম্বর ২০১৬, ০০:০০

গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি
ADVERTISEMENT

গলাচিপার সদর ইউনিয়নসহ আশপাশের এলাকাগুলোতে জেঁকে বসেছে শীত। শীতের ঘন কুয়াশা ও হীমেল হাওয়াতে সবাই ঝুকছে শীত কাপরের দোকানে। এই সময় আমন ধান কাটার উৎসব চলছে। তাই গরীব কৃষকার ধান বিক্রি করে লেপ-তোষক বানানো ও শীতবস্ত্র কেনাকাটায় মনোযোগী হয়ে পড়েছে।

শহরের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, গলাচিপা পৌর শহরের ব্যস্ততম সড়ক সংলগ্ন ফুটপাতের দোকান, সদর বাজার ও বিভিন্ন মার্কেটে অপেক্ষাকৃত কম মূল্যের পুরনো শীতবস্ত্রের বেচাকেনা জমে উঠেছে। প্রতিদিন এসব পুরনো শীতবস্ত্রের দোকানগুলোতে ক্রেতাদের ভিড় বাড়ছে। স্বল্প আয়ের মানুষদের এ দোকানগুলোতে এখন একই সঙ্গে ভিড় জমাচ্ছে মধ্যবিত্ত ও উচ্চ মধ্যবিত্ত পরিবারগুলো। তবে গতবারের চেয়ে এবার পুরনো শীতবস্ত্রের মূল্য অপেক্ষাকৃত চড়া হওয়ায় শ্রমজীবী দরিদ্র ক্রেতাদের অনেকেই পছন্দের কাপড়টি কিনতে পারছেন না।

বিক্রেতাদের দাবি, এবার পুরনো কাপড়ের দাম তেমন একটা বাড়েনি। প্রকার ও আকার ভেদে এ দোকানগুলোতে পুরনো সোয়েটার বিক্রি হচ্ছে সর্বনি¤œ ৬০-৭০ থেকে ঊর্ধ্বে ৬-৭শ’ টাকায়। সোয়েটার, জ্যাকেট ছাড়াও এ দোকানগুলোতে পাওয়া যাচ্ছে কোর্ট, প্যান্ট, শার্ট, ট্রাকস্যুট, কম্বল, মাফলার, কটি, টুপি, গেঞ্জি ইত্যাদি। তবে সাধারণত ক্রেতাদের বেশি পছন্দ বিভিন্ন ধরনের সোয়েটার, জ্যাকেট ও শিশুদের গেঞ্জি। ফলে এগুলো অপেক্ষাকৃত বেশি বিক্রি হচ্ছে। স্থানীয় ব্যবসায়ীরা ছাড়াও প্রতিদিন বরিশাল ও খুলনা থেকে বিভিন্ন ধরনের পুরনো গরম কাপড় নিয়ে আসছে ফেরিওয়ালারা।

 

 

"