শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেয়ায় ক্ষুব্ধ অভিবাকরা

প্রকাশ : ২৭ নভেম্বর ২০১৬, ০০:০০

বেড়া (পাবনা) প্রতিনিধি
ADVERTISEMENT

পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার কাশীনাথপুর আব্দুল লতিফ উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে বুধবার ও বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত পিএসসি পরীক্ষায় কক্ষ পরিদর্শক আব্দুস সালামের বিরুদ্ধে নির্ধারিত সময়ের ২০ মিনিট আগে খাতা কেড়ে নেয়া ও পরীক্ষার্থীদের মানসিক নির্যাতনের সুস্পষ্ট অভিযোগ সত্ত্বেও তার বিরুদ্ধে এ পর্যন্ত কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় অভিভাবকরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। অভিযুক্ত শিক্ষক সাঁথিয়া উপজেলার পাইকপাড়া সরকারি (নব্য) প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।

শিশু পরীক্ষার্থীরা জানায়, বেলা ১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত পরীক্ষার সময় নির্ধারিত থাকলেও ওই শিক্ষক আব্দুস সালাম বেলা ১টা বাজার পর থেকেই খাতা দেয়ার জন্য তাদের ধমকাতে থাকেন। অনেক শিক্ষার্থী প্রথম ধমকেই খাতা দিয়ে দেয়। আর যারা খাতা দেয়নি তাদের তিনি আবার ভয় ভীতি দেখান। এ সময় কয়েক শিক্ষার্থী ভয়ে কাঁপতে ও কাঁদতে শুরু করে।

অভিভাবকরা জানান, বিষয়টি হেলা ফেলার নয়। কিন্তু এ পর্যন্ত ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। তারা জানান, তাকে শুধু পরীক্ষার দায়িত্ব থেকে অপসারণই মূল কথা নয়। তাকে বিভাগীয় শাস্তি প্রদান করতে হবে। খাতা কেড়ে নেয়াসহ শিশুদের মানসিক নির্যাতন করার জন্য তাকে বিচরের মুখোমুখি দাঁড়নোর দাবি জানান তারা।

এদিকে ওই শিক্ষকের ব্যাপারে নানা নেতিবাচক খবর পাওয়া গেছে। এ কেন্দ্রে দায়িত্বপালনরত শিক্ষক ও অন্যান্য শিক্ষকদের মারফত জানা গেছে, তিনি তার গ্রামসহ তার বিদ্যালয় এলাকায় একজন ‘লম্পট শিক্ষক’ বলে পরিচিত। তার অযোগ্যতা এমনই যে তিনি রিডিংও পড়তে পারেন না।

 

 

"