‘ডিসির দুর্নীতির’ বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

প্রকাশ : ২৬ নভেম্বর ২০১৬, ০০:০০

নরসিংদী প্রতিনিধি
ADVERTISEMENT

নরসিংদীর জেলা প্রশাসকের (ডিসি) দুর্নীতি, অনিয়ম ও সেচ্ছাচারিতার অভিযোগে অপসারণের দাবীতে বিক্ষোভ ও সমাবেশ করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা, জনপ্রতিনিধি ও এলাকাবাসী। এতে এতে ডিসি আবু হেনা মোরশেদ জামানকে নিয়ে জেলাব্যাপী মানুষের মধ্যে নানা ধরনের আলোচনা ও সমালোচনার ঝড় উঠেছে। আতঙ্কের মধ্যে সময় কাটাচ্ছে কালেক্টরেট ও আদালত ভবনে বিভিন্ন কাজে জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত সাধারণ মানুষ। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে সহ¯্রাধিক মানুষ এই বিক্ষোভে অংশ নেয়।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে নরসিংদী সরকারী কলেজের অনার্স ভবনের সামনে থেকে অশ্লীল ভাষায় শ্লোগান দিতে দিতে নরসিংদী জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের প্রধান ফটকে এসে জমায়েত হয়। তারা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের প্রবেশ করতে চাইলে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আ স ম ফয়জুল হক, এএসপি (অপরাধ) হাসিবুল হক, গোয়েন্দা শাখার পরিদর্শক শহিদুর রহমানসহ ৮/১০ জন পুলিশ কর্মকর্তা তাদেরকে বাধা দেয়। পূর্বেই মিছিলের আঁচ পেয়ে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের কর্মচারীরা প্রধান ফটকটি বন্ধ করে দিয়ে ছিল। অপরদিক থেকে একটি জনতার মিছিল জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে আসতে থাকলে মুছলেহ উদ্দীন ভূইয়া স্টেডিয়ামের সামনে আর্মড পুলিশের একটি দল বাধা দিয়ে মিছিলটিকে সেখানেই থামিয়ে দেয়।

মিছিলে নেতৃত্ব প্রদান করেন জেলা আওয়ামী লীগ নেতা অলিউর রহমান আজিম, পৌর প্যানেল মেয়র রিপন সরকার, কাউন্সিলর আলমাছ মিয়া ও ইয়াছমিন সুলতানা, করিমপুর ইউপি চেয়ারম্যান হারিছুল হক, আরোকবালী ইউপির দেলোয়ার হোসেন দিপু, জেলা যুব মহিলা লীগ নেত্রী তৌহিদা সরকার রুনা, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা দিপু, জেলা পূজা কমিটির সাধারন সম্পাদ দীপক কুমার সাহা, জেলা শ্রমিক লীগ নেতা রফিকুল ইসলাম প্রমূখ নেতৃবৃন্দ।

অপর দিকে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের কালেক্টরেট কর্মচারী সমিতির সদস্যরা গত দু’দিনই জেলা প্রশাসকের বিরোদ্ধে মিছিলের প্রতিবাদ করে সভা করেছেন। সভায় তারাও এ আন্দোলনকে প্রতিহত করার শপথ নিয়েছে বলে জানা গেছে।

 

 

"