ঘুরে দাঁড়াতে চায় শাপেকোয়েনস

প্রকাশ : ০২ ডিসেম্বর ২০১৬, ০০:০০

খেলা ডেস্ক
ADVERTISEMENT

বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় সর্বস্ব হারিয়েছে ব্রাজিলের ক্লাব শাপেকোয়েনস। আকস্মিক এক দুর্ঘটনায় তাদের সাজানো-গোছানো ক্লাব এখন নিঃস্ব। খেলোয়াড়দের মধ্যে মাত্র ছয়জন এখন বেঁচে আছেন। আর আছে কয়েকজন স্টাফ। এই অবস্থায় ফিরে আসাটা বেশ কঠিন। তবে এত সহজে হার মানতে নারাজ ক্লাব কর্তৃপক্ষ। দুর্ঘটনায় নিহত খেলোয়াড়দের শোককে শক্তিতে পরিণত করতে চায় তারা। আবারো খেলতে সব চেষ্টা করে যাবে ক্লাবটি। ক্লাব পরিচালক ও স্থানীয় ব্যবসায়ী সিসিলিও হ্যান্স বলেন, ‘যারা মারা গেছে, তাদের স্মৃতি ধরে রাখতে ও তাদের পরিবারকে সম্মান জানাতে আমরা এই দলকে ধ্বংসস্তূপ থেকে নতুনভাবে তৈরি করব, এমনকি আরো শক্তিশালী দল হবে।’

শাপেকোয়েনস শক্তি সঞ্চয় করতে পারে ১৯৫৮ সালে ঘটে যাওয়া মিউনিখ ট্র্যাজেডি থেকে। ’৫০-এর দশকের শেষদিকে মিউনিখের আকাশে বিমান বিধ্বস্ত হলে মারা যান ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ৮ খেলোয়াড়। ইউনাইটেডের একটি প্রতিভাবান প্রজন্মের ইতি হয়েছিল তখন। টানা তৃতীয় লিগ শিরোপা জয়ের সমাধিও হয়েছিল ওই দুর্ঘটনায়। এরপর কিন্তু থেমে থাকেনি রেড ডেভিলরা। ওই ট্র্যাজেডির ৭ বছর পর শিরোপা জিতে তারাও ঘুরে দাঁড়িয়েছিল। ইউরোপীয় ফুটবলের শীর্ষে ফেরার পথে তাদের দিকে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। দুর্ঘটনার তিন দিন পরও এখনো বিষাদে আচ্ছন্ন হয়ে আছে শাপেকোয়েনস ভক্তদের মন। অবশ্য শাপেকোয়েনস ম্যানইউর মতো বড় কোনো দল না হলেও তাদের পাশে দাঁড়াচ্ছে বিশ্বের বড় বড় দল। ব্রাজিলের দক্ষিণাঞ্চলের ছোট দলকে ম্যানইউ ও রিয়াল সান্ত¦না দেওয়ার পাশাপাশি সমবেদনা জানাতে তাদের স্টেডিয়াম, ওয়েবসাইট ও ব্যাজ সবুজ রঙের করেছে। শাপেকোয়েনসের উঠে দাঁড়ানোর সম্ভাবনা বেশ উজ্জ্বল হয়ে উঠছে। এখন সহযোগিতা ছাড়া আর কিছুই গুরুত্বপূর্ণ নয়।

"