আজ লড়াই সেয়ানে সেয়ানে

মুখোমুখি ঢাকা-চিটাগং

প্রকাশ : ০২ ডিসেম্বর ২০১৬, ০০:০০

খেলা প্রতিবেদক
ADVERTISEMENT

কাগজে-কলমে শক্তির বিচারে অন্য দলগুলোর তুলনায় আলাদা ঢাকা ডাইনামাইটস ও চিটাগং ভাইকিংস। তারকার ঠাসাঠাসি উভয় দলেই। ঢাকা-চিটাগংয়ের পারফরম্যান্সও প্রত্যাশা পূরণ করছে ভক্তকূলের। যে কারণে ইলিমিনেটর পর্বে যাওয়ার দৌড়ে সবচেয়ে এগিয়ে আছে এই দল দুটোই। বড় কোনো অঘটন না ঘটলে দুটি দলেরই শেষ চারে জায়গা নিশ্চিত। আসরের শুরু থেকেই দুর্বার গতিতে ছুটছে ঢাকা ডাইনামাইটস। ১০ ম্যাচের ৭টিতে জিতে কার্যত পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে আছে সাকিব আল হাসানের দল। আজ জিতলে সবার ধরা ছোঁয়ার বাইরে চলে যাবে তারা। কিন্তু ঢাকা পারবে তো শীর্ষস্থানটা ধরে রাখতে? চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষের বিগ ম্যাচটা যে তাদের জন্য নেতৃত্ব ধরে রাখার উপলক্ষ্য।

উড়তে থাকা চিটাগংয়ের সমান ১২ পয়েন্ট খুলনা টাইটান্সেরও। তাই দিনের প্রথম ম্যাচে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে হারালে ইলিমিনেটর পর্বের টিকিট নিশ্চিত হয়ে যাবে খুলনার। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল এ ম্যাচে জয়টা খুব করে চাইছেন। হঠাৎই বিপিএলে গাঁ ঝাড়া দিয়ে ওঠা মাশরাফিদের নবাগত দলটি থামাতে পারবে তো? উত্তরটা মিলে যাবে সন্ধ্যার মধ্যেই।

এবারের বিপিএলে চিটাগং ভাইকিংসের শুরুটা দারুণই হয়েছিল। কিন্তু প্রথম জয়ের পর পথ হারানো দলটি কক্ষপথে ফিরেছে চট্টগ্রামপর্বে। ঘরের মাঠে নিজেদের খুঁজে পাওয়া ভাইকিংস এখন দারুণ ছন্দে। ক্রিস গেইল দলে যোগ দেয়ার পর তো দলটার আত্মবিশ্বাসও বেড়ে গেছে কয়েকগুন। তাছাড়া অধিনায়ক তামিম ইকবালও এই মুহূর্তে আছেন ফর্মের তুঙ্গে। চিটাগং ভাইকিংসের ফুরফুরে মেজাজে থাকাটাই স্বাভাবিক।

প্রথম ম্যাচে প্রত্যাশিত ঝড় তুললেও গেইল পরের ম্যাচে ফিরে গেছেন একটু আগে ভাগেই। খুলনা ম্যাচে করেছেন ১৯ রান। তাতে অবশ্য জয় আটকায়নি ভাইকিংসের। তামিমের ব্যাটে চড়ে জয়ের বন্দরে নোঙর ফেলে ভাইকিসং। তবে গেইল রান না করলেও খেলোয়াড়রা নির্ভার থাকেন। টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান জহুরুল ইসলাম অন্তত তাই মনে করেন। কাল অনুশীলনের ফাঁকে তিনি বলেছেন, ‘গেইল যদি রান নাও করেন বাকি খেলোয়াড়রা তাতেও একটু নির্ভার থাকেন। তার মতো ক্রিকেটারের সঙ্গে সাজঘর ভাগাভাগি করা এবং খেলা অনেক বেশি কিছু। সে যখন ব্যাটিংয়ে নামে এটা অন্য খেলোয়াড়কে অনুপ্রাণিত করে। এমন একজনকে সতীর্থ হিসেবে পেলে সব সময় বাড়তি একটা সুবিধা পাবেন।’

ঢাকা ডাইনামাইটসে অবশ্য এমন বড় কোনো নাম নেই। তবে কুমার সাঙ্গাকারা, মাহেলা জয়াবর্ধনে, ডিজে ব্রাভোর মতো তারকা খেলোয়াড়রা আছেন। তাছাড়া নেতৃত্ব দিচ্ছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তাদের চোয়ালবদ্ধ পারফরম্যান্সেই তো এগিয়ে চলছে ঢাকা।

টানা পাঁচ ম্যাচ জিতে রীতমত উড়ছে ভাইকিংস। তামিমের দল ভুলে গেছে পরাজয়ের স্বাদ। আজ ঢাকা সেটা আবার মনে করিয়ে দেয়ার অঙ্গীকার করে বসেছে। কেননা চিটাগং সর্বশেষ যে ম্যাচটা হেরেছিল সেটা এই দলটার বিপক্ষে। এই ম্যাচে তাই ঘুড়ে দাঁড়ানোর কোনো বিকল্প দেখছেন না ভাইকিংস ব্যাটসম্যান জহুরুল। বলেছেন, ‘এর আগে ঢাকার বিপক্ষে আমরা যে ম্যাচটা খেলেছি তখন আমাদের দল খুব একটা ভালো অবস্থায় ছিল না। কিন্তু এখন আমরা দারুণ ছন্দে আছি। শেষ পাঁচটা ম্যাচ জিতেছি। আশা কররছি এবার ঢাকার সাথে আমরা জিততে পারব।’

"