লিগ কাপের সেমিতে লিভারপুল

লিভারপুল ২:০ লিডস

প্রকাশ : ০১ ডিসেম্বর ২০১৬, ০০:০০

খেলা ডেস্ক
ADVERTISEMENT

ইংলিশ লিগ কাপের সেমিফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে লিভারপুল। পরশু কোয়ার্টার ফাইনালে লিডস ইউনাইটেডকে ২-০ গোলে হারিয়েছে অল রেডরা। লিভারপুলের জয়ের নায়ক বেন উডবার্ন। এদিন সবচেয়ে কম বয়সী হিসেবে টুর্নামেন্টে গোল করার অনন্য এক নজির গড়েন এই তর¤œণ ফুটবলার।

অ্যানফিল্ডে ম্যাচের ৮১তম মিনিটে গোল করে দিনটিকে স্মরনীয় করে রাখেন ১৭ বছর ৪৫ দিন বয়সী লিভারপুল তারকা। ফলে মাইকেল ওয়েনের কম বয়সে গোল করার রেকর্ডটি ভেঙ্গে দেন উডবার্ন। ওয়েন ১৯৯৭ সালে উইম্বলডনের বিপক্ষে গোল করে যখন রেকর্ডটি করেছিলেন তখন বয়স ছিল ১৭ বছর ১৪৩ দিন। এ ঘটনায় উডবার্নকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ওয়েন। এক টুইট বার্তায় তিনি লিখেছেন, ‘আমার কাছ থেকে আরেকটি রেকর্ড কেড়ে নেয়া হল। সবচেয়ে কম বয়সি হিসেবে গোল করার রেকর্ড গড়ার জন্য উডবার্নকে অভিনন্দন জানাচ্ছি।’

সম্প্রতি লিভারপুলের সঙ্গে দীর্ঘ মেয়াদে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন উডবার্ন। ওয়েলসের অনুর্ধ ১৯ আšত্মর্জাতিক দলের এই খেলোয়াড় এখনো ইংল্যান্ডের সিনিয়র দলে নিয়মিত খেলার ছাড়পত্র অর্জন করতে পারেননি। লিভারপুল কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ বলেছেন, ‘আমরা জানি বেন বয়সে ও কতটা তর¤œণ। এটা তার কাছে অনুশীলনের মতো। ওর গোল করাটা দার¤œণ একটা রোমাঞ্চ হয়ে থাকল। ছেলেরা ওকে সতীর্থ হিসেবে পেয়ে সত্যি খুশি। সাজঘরে সবাই হাসিখুশি থাকার কারণ এখন ও। এটি বেন এবং আমাদের জন্য ভাল একটি মুহূর্ত।’

উডবার্ন ও ডিভোগ অরিজির রগালে ভর করে এই নিয়ে তৃতীয়বারের মত লিগ কাপের শেষ চারে উঠল লিভারপুল। বিদায় নিতে হলো লিডসকে। তবে এদিন শোকাহত হয়েই মাঠে নেমেছিল দুদল। খেলা শুর¤œর আগে বিমান দূর্ঘটনায় নিহত ব্রাজিলীয় খেলোয়াড়সহ হতাহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে লিভারপুলের ব্রাজিলীয় অধিনায়ক লুকাস ও তার সতীর্থরা কালো আর্মব্যান্ড পড়ে মাঠে নামেন এবং এক মিনিট নিরবতা পালন করে। লিডস ম্যাচে নিয়মিত দলের আটটি পরিবর্তন দিয়ে একাদশ সাজান লিভারপুল কোচ ক্লপ। গোড়ালির ইনজুরিতে পড়া কুতিনহোকে সাইডলাইনে রেখে সাজানো একাদশে তিনি সুযোগ দেন টিন এইজ ফুটবলার ট্রেন্ট আলেক্সান্ডার আর্নল্ড ও ওভি ইজেরিয়াকে। ১৯৯৬ সালে সর্বশেষ লিগ কাপের সেমিতে খেলা লিডস শুর¤œতে তীব্র প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিল। অরিজির ৭৬ মিনিটে করা গোলে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় ক্লপের শিষ্যরা। পাঁচ মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুন করেন বেন উডবার্ন (২-০)।

"