ফের প্রশ্নবিদ্ধ সানি

প্রকাশ : ০১ ডিসেম্বর ২০১৬, ০০:০০

খেলা প্রতিবেদক
ADVERTISEMENT

বোলিং অ্যাকশন অবৈধ হওয়ায় প্রান্তসীমায় আসা বছরের শুরুর দিকে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন তাসকিন আহমেদ ও আরাফাত সানি। মার্চে ভারতে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকেই নির্বাসিত হন টাইগার যুগল বোলার। অ্যাকশন শুধরে নিষেধাজ্ঞার খড়্গ কাটিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পুনর্জন্ম হয়েছে তাসকিনের। তবে সানিকে থাকতে হয়েছে অপেক্ষায়। আসন্ন নিউজিল্যান্ড সিরিজে প্রতীক্ষার প্রহর শেষ হবে বলে আত্মবিশ্বাসী ছিলেন এই স্পিনার। কিন্তু আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার পথটা আরো বন্ধুর হয়ে উঠল তার জন্য। বৈধ অ্যাকশনের ছাড়পত্র পাওয়ার প্রায় আড়াই মাসের মধ্যে ফের কাঠগড়ায় টাইগার স্পিনারের অ্যাকশন। চলমান বিপিএলে রাজশাহী কিংসের বিপক্ষের পরশুর ম্যাচে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। সন্দেহভাজনের তালিকায় নাম উঠে গেছে সানির সতীর্থ সোহাগ গাজী এবং প্রতিপক্ষ কেভন কুপারেরও।

বৈধ অ্যাকশনের ছাড়পত্র পাওয়া সানি রংপুর রাইডার্সের জার্সিতে শুরু থেকেই দ্যুতি ছড়াচ্ছেন। সঙ্গে সোহাগের ঘূর্ণিজাদু রংপুর রাইডার্সের বোলিংয়ের শক্তিমত্তা বাড়িয়ে দিয়েছে কয়েক গুণ। চলমান আসরে ১০ ম্যাচে ১১ উইকেট শিকার করেছেন এই স্পিনার। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে উইকেট ঝুলিতে পুড়ছেন সোহাগও। সমান ম্যাচে তার উইকেট একটি কম। তবে পাদ প্রদীপে থাকছেন সানিই। বাঁ-হাতি স্পিনারের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে ফের প্রশ্ন উঠে গেছে। পরশু রাজশাহী কিংসের বিপেক্ষ ১৯তম ওভাওে তার প্রথম ডেলিভারি নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন দুই ম্যাচকর্তা গাজী সোহেল ও রশিদ রিয়াজ। ম্যাচ শেষে রেফারির কাছে দেওয়া প্রতিবেদনে আম্পায়াররা জানান, রাজশাহী-রংপুর ম্যাচে সানির একটি ডেলিভারি প্রশ্নবিদ্ধ মনে হয়েছে।

অবশ্য কাঠগড়ায় দাঁড়ালেও এখনই তার হাত থেকে বল কেড়ে নেওয়া হচ্ছে না। বিসিবির একটি সূত্র জানিয়েছে, ভিডিও ফুটেজ দেখে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। কার্যত বিপিএলে বোলিং করতে তার কোনো বাধা নেই। বোলিং করতে পারবেন তার সঙ্গে কাঠগড়ায় থাকা বরিশাল বুলসের বিদেশি ক্রিকেটার কেভন কুপারও। বিপিএলে অ্যাকশন-সংক্রান্ত কঠোর আইন না থাকায় খেলতে পারছেন খুলনা টাইটানসের ক্যারিবীয় অলরাউন্ডার। একটি সূত্রের খবরÑকুপারের অ্যাকশন ত্রুটির বিষয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডকে অবহিত করেছে বিপিএল গভর্নিং কমিটি ও বিসিবি। ১২ নভেম্বর চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে ম্যাচে দুই আম্পায়ার মাহফুজুর রহমান ও শ্রীলঙ্কান রেজ মার্টিনেজ কুপারের বিরুদ্ধে সন্দেহের তীর ছুড়েছেন।

অবশ্য অন্যদের ছাপিয়ে আলোচনার কেন্দ্রে সানি। রাজশাহী ম্যাচে প্রশ্নবিদ্ধ হওয়ার পর কাল ফের হাতে বল তুলে নিয়েছেন তিনি। ঢাকা ডাইনামাইটসের বিপক্ষের ম্যাচে নাঈম ইসলামের অনুপস্থিতিতে রংপুর রাইডার্সকে দিয়েছেন নেতৃত্ব সানি। কিন্তু এদিন বাঁ-হাতি স্পিনার বল করলেন মাত্র এক ওভার। খরচ করেছেন ১০ রান। পরশু ম্যাচের অভিযোগের প্রভাবটা রীতিমতো মাঠেও পড়ল সানির ওপর।

শেষ পর্যন্ত সানি নিষিদ্ধ হবেন কি না কার্যত এটা বলা মুশকিল। তবে অ্যাকশনে ত্রুটি ধরা পড়লে ফের নির্বাসনে যেতে হবে এটা নিশ্চিত। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিসিবি পরিচালক ও বোলিং অ্যাকশন রিভিউ কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেছেন, ‘আগামী আসর থেকে আমরা বোলিং অ্যাকশন প্রশ্নবিদ্ধ হওয়ার ব্যাপারে কঠোর হব। কারোর অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন উঠলে ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করে তা খতিয়ে দেখা হবে। অ্যাকশনে ত্রুটি থাকলে তাকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হবে।’

"