অবশেষে জিতল অস্ট্রেলিয়া

প্রকাশ : ২৮ নভেম্বর ২০১৬, ০০:০০

খেলা ডেস্ক
ADVERTISEMENT

একদিকে নিজেদের দুঃসময়কে কবর দেওয়ার তাড়না, অন্যদিকে ফিলিপ হিউজের মর্মান্তিক মৃত্যুর দ্বিতীয় বার্ষিকী। এমন ম্যাচ নিশ্চয় অস্ট্রেলিয়া হারতে পারত না। হারেওনি, বন্ধুর জন্য জয়টা ঠিকই নিজেদের করে নিল স্টিভেন স্মিথের দল। সেই সঙ্গে নানা বিপর্যয় সামাল দিয়ে আরো একবার ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দিল ওডিআই ক্রিকেটের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

এদিন হিউজ স্মরণে দুই দলের ক্রিকেটাররাই বাহুতে হিউজের নাম লেখা কালো কাপড় বেঁধে নেমেছিলেন। সেই সঙ্গে পাঁচ ম্যাচ হারের পর জয় দিয়ে তাকে স্মরণ করল টিম অস্ট্রেলিয়া।

আগের দিন একাই লড়ছিলেন স্টিভেন কুক। এদিনও লড়লেন, তুলে নিলেন সেঞ্চুরি। এর আগে দিনের পঞ্চম ওভারেই ডি কককে ফেরান জ্যাকসন বার্ড। এরপর কুক-ফিল্যান্ডার জুটির কল্যাণে লিড ১০০ পেরোয়। ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি তুলে নেন স্টিভেন কুক। কিন্তু এর পরও বাঁচাতে পারেননি দলকে। দ্রুতই প্রোটিয়াদের লেজ গুটিয়ে ফেলেন স্টার্ক, হ্যাজলউড।

মাত্র ১২৭ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ভঙ্গিতে ব্যাটিং করতে থাকেন ডেভিড ওয়ার্নার। মনে হচ্ছিল ওয়ার্নার-রেনশ জুটিই খেলা শেষ করে দেবেন। কিন্তু প্রথম ইনিংসের রানআউটের ভূত আবারো ফিরে এলো। রানআউট হয়ে ফিরেছেন ওয়ার্নার। একই ওভারে আগের ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান উসমান খাজাকে শূন্য রানেই ফেরান শামসি। আম্পায়ার হাত না তুললেও রিভিউতে দেখা যায় বল স্ট্যাম্পে লাগছে।

তখনো ৬৩ রান বাকি। আরো একবার বিপর্যয়ের আশঙ্কাও জেগেছিল। কিন্তু তেমনটা হতে দেননি রেনশ-স্মিথ। দলকে জয়ের খুব কাছে এনে অ্যাবটের বলে ফেরেন স্মিথ। জয়সূচক রানটি আসে নবাগত হ্যান্ডসকম্বের ব্যাট থেকে। টেস্ট ক্রিকেটে মাত্র দ্বিতীয়বার দুই নবাগত জয় এনে দিলেন কোনো দলকে। সেই সঙ্গে ইঙ্গিত দিলেন নতুন এক শুরুরও।

"