শিক্ষকের মৃত্যু

ফুলবাড়িয়ায় ইউএনওকে ধাওয়া

প্রকাশ : ০১ ডিসেম্বর ২০১৬, ০০:০০

ফুলবাড়িয়া প্রতিনিধি
ADVERTISEMENT

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে ধাওয়া দিয়ে তাড়িয়ে দিয়েছেন কলেজ সরকারীকরণের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। গতকাল বুধবার জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের তদন্ত কমিটির সঙ্গে ঘটনাস্থলে গেলে ইউএনও লিরা তরফদারকে আন্দোলনকারীরা ধাওয়া করেন বলে জানান ফুলবাড়িয়া থানার ওসি রিফাত খান রাজিব।

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া ডিগ্রি কলেজে গত রোববার আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে ওই কলেজের উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ (৫০) ও পথচারী সফর আলী (৭০) মারা যান। ঘটনা তদন্তে ছয়টি কমিটি গঠিত হয়েছে।

ওসি বলেন, সংঘর্ষে কলেজ শিক্ষকসহ দুজন নিহত হওয়ার ঘটনায় গঠিত জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চার সদস্যের তদন্ত কমিটি বুধবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। তদন্ত কমিটির সঙ্গে ঘটনাস্থলে উপস্থিত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিরা তরফদারকে শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ স্থানীয়রা ধাওয়া করেন। পরে পুলিশ পাহারায় তিনি ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

এ বিষয়ে ইউএনওর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ বিষয়ে কোনো কথা বলতে রাজি হননি।

এদিকে তদন্ত কমিটির সদস্যরা ফুলবাড়িয়া ডিগ্রি কলেজ পরিদর্শন করেন। এ সময় তারা প্রত্যক্ষদর্শী শিক্ষক ও কর্মচারীদের সঙ্গে কথা বলেন।

কমিটি প্রধান ও জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের কমিশনার আক্তার হোসেন বলেন, কোনো মানুষকে হত্যা করা মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন। ফুলবাড়িয়াতে শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ এবং পথচারী সফর আলী নিহতের ঘটনায় মানবাধিকার লঙ্ঘিত হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার তদন্তের প্রাথমিক প্রতিবেদন ও সাত কর্মদিবসের মধ্যে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

এ সময় তদন্তে আরো উপস্থিত ছিলেন কমিশনের অভিযোগ ও অনুসন্ধান বিভাগের পরিচালক শরীফ উদ্দিনসহ সদস্য জয়দেব চক্রবর্তী ও আনিসুর রহমান।

"