নাসিক নির্বাচন

মাঠে নামতে প্রস্তুত দুই দল

প্রকাশ : ০১ ডিসেম্বর ২০১৬, ০০:০০

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি
ADVERTISEMENT

জমে ওঠার অপেক্ষায় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নির্বাচন। বড় দুদলের মেয়র প্রার্থীরা এখনো সেভাবে নামেননি ভোটের মাঠে। আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীরা দলীয় প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী মাঠে নামতে প্রস্তুত থাকলেও প্রতীক না পাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হচ্ছে তাদের। তবে নগরবাসী মনে করছে, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অংশ নেওয়া দুদলের মেয়র প্রার্থীরা প্রতীক পেলেই জমে উঠবে নির্বাচনী প্রচারণা।

এদিকে শহরের ডিআইটি ও দুই নম্বর রেলগেট এলাকায় অবস্থিত দুই রাজনৈতিক দলের কার্যালয়গুলোও নেতাকর্মীশূন্য। তবে নির্বাচনের জন্য রাজনৈতিক কার্যালয় দুটি প্রস্তুত রাখা হয়েছে। নির্বাচনী কর্মকা- মূলত এসব অফিস থেকে পরিচালনা করা হবে বলে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি সূত্রে জানা গেছে। এদিকে, এবারের নির্বাচনে মূল আলোচনায় রয়েছে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী ও বিএনপি মনোনীত অ্যাডভোকেট শাখাওয়াত হোসেন খান। আর এই দুই প্রার্থীর দিকেই তাকিয়ে রয়েছে পুরো জেলার মানুষ। আওয়ামী লীগ থেকে আইভীকে মনোনীত করা হলেও বিএনপি থেকে সে তুলনায় দুর্বল প্রার্থী দেওয়া হয়েছেÑএমন অভিমত নগরবাসীর। সচেতন মহলের মতে, বিএনপি প্রার্থীকে দুর্বল মনে করা হলে, ভুল করবে আইভী শিবির। বিএনপির প্রার্থীর পেছনে জামায়াত, হেফাজত ও আওয়ামী লীগের একটি অংশ মাঠে নামতে প্রস্তুতি নিচ্ছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নির্বাচনী হাওয়া এখনো পুরোপুরি লাগেনি নগরীতে। এবারের নির্বাচনে একাধিক রাজনৈতিক দল অংশ নিলেও কোনো দলেই এখনো প্রস্তুত নয়। নিজেদের ঘর গোছাতে ব্যস্ত রয়েছেন তারা। নেতাকর্মীরা আছেন দলীয় প্রতীকের অপেক্ষায়। ইতোমধ্যে বিএনপি ও আওয়ামী লীগ প্রার্থীরা তাদের নিজস্ব কিছু আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করছেন। নেতাকর্মীদের নিয়ে মাঠে নামারও প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছেন তারা। অন্যদিকে, দলীয় প্রার্থীর পক্ষে নামতে রাজনৈতিক কর্মীদের পাশাপাশি দলের শীর্ষ নেতারাও নানাভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। আওয়ামী লীগের প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর পক্ষে মাঠে নামতে আগ্রহের কথা জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। সবাই মিলে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে কাজ করবেন বলে আশা প্রকাশ করেছেন অনেক নেতা। যারা এতদিন আইভীবিরোধী নেতা হিসেবে পরিচিত ছিলেন তারাও এখন আইভীর পাশে আসতে চাচ্ছেন। দলীয় সভানেত্রীর নির্দেশ মানতেই আইভীর পক্ষে ভোটের মাঠে থাকবেন বলে জানিয়েছেন তারা।

অন্যদিকে, বিএনপির ক্ষেত্রে এর ব্যতিক্রম ঘটেনি। জেলা বিএনপির শীর্ষ নেতা থেকে শুরু করে তৃণমূলের নেতাকর্মীরাও ভোটের মাঠে নামতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছেন। এখন কেবল প্রতীকের অপেক্ষা। জেলা বিএনপির বিবাদমান নেতারা নাসিক নির্বাচনকে ঘিরে এক মঞ্চে আসতে শুরু করেছেন। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দলীয় প্রার্থীর পক্ষে নামতে নেতাদের কঠোর নির্দেশ দিয়েছেন। এ ছাড়া নির্বাচনী প্রচারণায় দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের পাশাপাশি তিনি নিজেও নারায়ণগঞ্জে আসবেন বলে জানা গেছে।

খালেদা জিয়ার আসার অপেক্ষায় রয়েছেন জেলা বিএনপি নেতাকর্মীরা। বিএনপির একাধিক নেতা জানান, খালেদা জিয়া দলীয় প্রার্থীর পক্ষে নারায়ণগঞ্জে এলে নির্বাচনী মাঠের দৃশ্যপট পাল্টে যাবে। দীর্ঘদিন ধরে নিষ্প্রাণ নেতাকর্মীদের মধ্যেও প্রাণের সঞ্চার ঘটবে।

"