কাস্ত্রোর স্মরণীয় উদ্ধৃতি

প্রকাশ : ২৭ নভেম্বর ২০১৬, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক
ADVERTISEMENT

ফিদেল কাস্ত্রো। কিউবা বিপ্লবের নায়ক। ১৯৫৯ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দোসর কর্তৃত্বপরায়ণ শাসক বাতিস্তাকে সশস্ত্র বিপ্লবের মাধ্যমে উৎখাত করে কিউবাকে একটি কমিউনিস্ট রাষ্ট্রে রূপান্তর করেন এবং দীর্ঘ পাঁচ দশকেরও বেশি সময় দেশটি পরিচালনা করেন। গত শুক্রবার রাতে তিনি মারা যান। কিউবার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন পরদিন শনিবার এই মৃত্যুসংবাদ ঘোষণা করে। তার বয়স হয়েছিল ৯০ বছর। তিনি কিউবার রাজধানী হাভানায় এবং রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম গ্রানমায় জনসমাবেশে বক্তৃতা করতেন এবং নিবন্ধ লিখতেন। তার এসব বক্তৃতা ও লেখা থেকে কিছু স্মরণীয় উদ্ধৃতি এখানে তুলে ধরা হলো-

‘আমি ৮২ জন সহযোদ্ধা নিয়ে বিপ্লব শুরু করেছিলাম। যদি আমাকে আবার তা করতে হতো, আমি তা ১০ থেকে ১৫ জন মানুষ এবং নিখাদ বিশ্বাস নিয়ে সম্পন্ন করতাম। বিষয়টা আপনি নিজে কতটা ক্ষুদ্র তা নয়, যদি আপনার বিশ্বাস অটুট থাকে এবং কর্ম পরিকল্পনা থাকে।’

*১৯৫৯ সালে বিপ্লব সম্পর্কে ভাষণে।

‘আমি আমার দাড়ি কাটার কথা ভাবছি না, কারণ আমি আমার দাড়িতে অভ্যস্ত এবং আমার এই দাড়ি আমার দেশের জন্য অনেক কিছু। যেদিন আমরা দেশের জন্য একটি ভালো সরকারের অঙ্গীকার পূরণ করতে সক্ষম হব, সেদিনই আমি আমার দাড়ি কাটব।’

*১৯৫৯ সালে বিপ্লবের ৩০ দিন পর সিবিএসের এডওয়ার্ড মুরোর সঙ্গে সাক্ষাৎকারে।

‘বিপ্লব কোনো ফুলশয্যা নয়। বিপ্লব হচ্ছে ভবিষ্যৎ ও অতীতের মধ্যেকার চলমান সংগ্রাম।’

*১৯৫৯ সালে কাস্ত্রো।

‘আমি অনেক আগেই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছিলাম যে, কিউবার জনস্বাস্থ্য রক্ষায় ধূমপান ত্যাগ করার মধ্য দিয়ে আমার সর্বশেষ আত্মত্যাগটি করব।’

*১৯৮৫ সালের ডিসেম্বরে ধূমপান ত্যাগ করার ঘোষণাকালে কাস্ত্রো।

‘আমি কখনো আমাকে টেকসই করার আদর্শ এবং সেই অসাধারণ ব্যক্তিত্বের (যিশু খ্রিস্ট) প্রতীকী আদর্শের মধ্যে দ্বন্দ্ব আছে বলে অনুভব করিনি।’

*১৯৮৫ সালে কাস্ত্রো।

‘আমরা আমাদের বাস্তবতায় অনড় থাকব। সমাজতান্ত্রিক শিবির ভেঙে পড়েছে, এটা অত্যন্ত সরলীকরণ কথা।’

*১৯৯১ সালে কাস্ত্রো।

‘বিপ্লবের একটি বড় পাওনা হচ্ছে এই যে, এমনকি আমাদের গণিকারাও স্নাতক পর্যায়ের শিক্ষিত।’

*২০০৩ সালে কমান্ডান্তে ডকুমেন্টারিতে পরিচালক অলিভার স্টোনের সঙ্গে আলাপচারিতায় কাস্ত্রো।

‘আমি বুঝতে পারছি যে, আমার সত্যিকারের নিয়তি হচ্ছে একটি যুদ্ধ-যা আমি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে প্রতিনিয়ত লড়ে যাচ্ছি।’

*২০০৪ সালে স্টোনের দ্বিতীয় ডকুমেন্টারি ‘লুকিং ফর ফিদেল’-এ কাস্ত্রোর উদ্ধৃতি।

‘অনেক বছর পর আমি একটি উপসংহারে পৌঁছেছি যে, আমরা যত ভুল করতে পারি তার মধ্যে সবচেয়ে বড় ভুলটি ছিল কাউকে বিশ্বাস করা যে, তিনি সত্যি জানেন কী করে সমাজতন্ত্র তৈরি করা যায়।...যা তারা বলতেন, ‘এটাই হচ্ছে ফর্মুলা’। আমরা ভেবেছিলাম তারা জানতেন। এটা যেন অনেকটা কেউ একজন চিকিৎসক, (যিনি দাওয়াই দিচ্ছেন)।’

*২০০৫ সালে কাস্ত্রো।

‘৮০-তে পা রেখে সত্যি আমি সুখী। এ রকমটি আমি কখনো ভাবিনি, বিশ্বের সর্ববৃহৎ একটি শক্তি আমার প্রতিবেশী যে নাকি প্রতিনিয়ত আমাকে হত্যার চেষ্টা করছে তাকে ছোট করে দেখার নয়।’

*২০০৬ সালে আর্জেন্টিনায় লাতিন আমেরিকান প্রেসিডেন্টদের শীর্ষ সম্মেলনে দেওয়া ভাষণে কাস্ত্রো।

‘আমরা উন্নত পুঁজিবাদী কোনো রাষ্ট্রের সঙ্কটে ভুগছি না। এসব দেশের নেতারা মন্দা, মূল্যস্ফীতি, বাজারের অভাব ও বেকারত্বের মধ্যে থেকে তার সমাধানের জন্য পাগল হয়ে পড়েছে। আমরা সমাজতন্ত্রী আছি এবং অবশ্যই তা থাকব।’

*২০০৮ সালে সংবাদপত্রে লিখিত নিবন্ধে কাস্ত্রো।

গার্ডিয়ান থেকে ভাষান্তর, চন্দন সরকার

 

 

"