অভিমত

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণ করুন

জাকারিয়া শেখ

প্রকাশ : ১৩ আগস্ট ২০১৬, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক
ADVERTISEMENT

কয়েকদিন ধরে একটি বিষয়ে নিয়ে ভাবছিলাম। বিষয়টি হলো স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ‘সোনার বাংলা’। বঙ্গবন্ধুর জীবনী পড়ে জানতে পারলাম তাঁর স্বপ্নের কথা। মায়ের কাছে প্রশ্ন করলামÑ মা, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন কী ছিল? মা বললেন, সোনার বাংলা। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ বৃহত্তর ফরিদপুর, বর্তমানে গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়া গ্রামে একটি সম্ভ্রান্ত মুসলিম (শেখ) পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন স্বাধীনতা সংগ্রামের মহানায়ক বাঙালি বীরপুরুষ। ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ ঢাকার রেসকোর্স ময়দানে বিশাল এক জনসভায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার ডাক দিয়ে বলেছিলেন, ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।’ জাতির জনক ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। স্বাধীনতা সংগ্রামে নেতৃত্ব দেওয়ার কারণে শেখ মুজিবুর রহমানকে ১৯৭১ সালে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী গ্রেফতার করে পশ্চিম পাকিস্তানে নিয়ে যায়। দেশের স্বাধীনতার জন্য শেখ মুজিবুর রহমান কারাভোগ করেন। অবশেষে কারাগার থেকে ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি মুক্তি পেয়ে দেশে ফিরে আসেন। জাতির জনকের স্বপ্ন ছিল স্বাধীন বাংলাদেশকে ‘সোনার বাংলা’ হিসেবে গড়ে তোলা। তাঁর সেই স্বপ্ন পূরণ হওয়ার আগেই ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে ঘাতকদের হাতে সপরিবারে শহিদ হন। সেদিন ঘাতকদের হাত থেকে রেহাই পায়নি আদরের ছোট ছেলে শেখ রাসেলও। শেখ রাসেলকে পাষ ঘাতকরা হত্যা করে। সেদিন ভাগ্যক্রমে বেঁচে গিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধুর দুই মেয়ে শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা। শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ‘সোনার বাংলা’ স্বাধীনতার ৪৫ বছরেও পূরণ হয়নি। স্বপ্ন পূরণ তো দূরের কথা, তিনি শহিদ হওয়ার প্রায় ৪১ বছরেও তাঁর হত্যাকারীদের বিচারকাজ সমাপ্ত হয়নি। দু-একজন হত্যাকারীর বিচার করলে চলবে না। তাঁর হত্যার সব অপরাধীকে দেশে ফিরিয়ে এনে আইনের কাঠগড়ায় দাঁড় করাতে হবে। তাঁর হত্যাকারীদের বিচার না করতে পারলে দেশ বা জাতি কলঙ্কমুক্ত হওয়া তো দূরের কথা, তাঁর আত্মার সঙ্গে বেঈমানি করা হবে।

এদেশের মানুষের সামাজিক, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক, নৈতিক ও মৌলিক অধিকারসহ সব ক্ষেত্রে অধিকার নিশ্চিত করতে হবে। পাশাপাশি বন্ধ করতে হবে হত্যা, ধর্ষণ, নির্যাতন এবং রাজনৈতিক সহিংসতায় মানুষের মৃত্যু। দেশে আজ জঙ্গিবাদ, উগ্রবাদ মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। এ দেশ থেকে জঙ্গিবাদ, উগ্রবাদ উপড়ে ফেলতে হবে। স্বাধীনতাযুদ্ধের সময় যারা পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীকে সহযোগিতা করেছিল- সেই রাজাকার, আলবদর, আলশামস তথা যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করতে হবে। কোনো অপরাধী যেন গা-ঢাকা দিতে না পারে, সেদিকে নজর রাখতে হবে। সব অপরাধীর বিচার করে জাতিকে কলঙ্কমুক্ত করতে হবে। স্বাধীনতার পর সরকার (আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি) পাল্টেছে কয়েকবার। কেউ বা কোনো সরকারই জাতির জনকের স্বপ্ন ‘সোনার বাংলা’র কথা ভাবেননি। ভাবলেও কোনো সরকারই পদক্ষেপ নেয়নি। আর নেবে বা-ই কেন? সবাই তো (সরকার) ক্ষমতাকে ভালোবেসেছে স্বার্থ হাসিলের জন্য। জাতির জনকের স্বপ্ন পূরণ করতে হলে তাঁর হত্যাকারীদের ও মানবতাবিরোধীদের বিচার করতে হবে; ব্যাংকিং খাতে দুর্নীতি বন্ধ ও দেশে জঙ্গিবাদের শেকড় খুঁজে বের করতে হবে। সীমান্তহত্যা শূন্যের কোটায় নামিয়ে আনতে হবে। পাশাপাশি বন্ধ করতে হবে রাজনৈতিক রোষানল, নিশ্চিত করতে হবে মানুষের সব ধরনের অধিকার। তাহলেই সম্ভব শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ‘সোনার বাংলা’ বাস্তবায়ন।

লেখক : সাংবাদিক

"