উৎপাদন কমানোর ঘোষণা ওপেকের

বিশ্ববাজারে তেলের দাম বৃদ্ধি

গত বুধবার দিন শেষে প্রতি ব্যারেল তেল বিক্রি হয়েছে ৫২ দশমিক ৩১ ডলারে

প্রকাশ : ০২ ডিসেম্বর ২০১৬, ০০:০০

বাণিজ্য ডেস্ক
ADVERTISEMENT

তেল উৎপাদনকারী দেশগুলো মনে করছে তাদের অর্থনীতির স্বার্থে উৎপাদন কমানো জরুরি।

তেল উৎপাদনকারী দেশগুলোর সংগঠন ওপেক সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে দাম বাড়ানোর জন্য উৎপাদন কমানো হবে। গত আট বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো উৎপাদন কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংগঠনটি। এ সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়ায় আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম বেড়েছে। গত বুধবার দিন শেষে প্রতি ব্যারেল তেল বিক্রি হয়েছে ৫২ দশমিক ৩১ ডলারে। যা দিন শুরুর দামের তুলনায় প্রায় ১২ শতাংশ বেশি। গতকাল বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

দ্য অর্গানাইজেশন অব দ্য পেট্রোলিয়াম এক্সপোর্টিং কান্ট্রিজের (ওপেক) অন্তর্ভুক্ত দেশগুলোর সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে উৎপাদন কমানোর কারণেই আন্তর্জাতিক বাজারে হঠাৎ তেলের দাম বেড়েছে বলে ওই প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে।

ওপেকের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ বিন সালেহ আল-সাদা বলেছেন, আগামী জানুয়ারি মাস থেকে প্রতিমাসে ১ দশমিক ২ মিলিয়ন ব্যারেল উৎপাদন কমানো হবে। গত দুই বছর ধরে বাজারে তেলের সরবরাহ বেশি থাকায় দাম বেশ পড়ে গেছে।

নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ওপেকভূক্ত দেশগুলোর উৎপাদন কমানোর পাশাপাশি ওপেকভূক্ত নয় এমন দেশগুলো প্রতিমাসে ছয় লাখ ব্যারেল তেল উৎপাদন কমাবে।

কিন্তু কোন দেশগুলো উৎপাদন কমাবে সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি ওপেকের প্রেসিডেন্ট। তবে রাশিয়া তেলের উৎপাদন কমাবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

মোহাম্মাদ বিন সালেহ আল-সাদা বলেন, ‘ওপেকভূক্ত এবং নন-ওপেকভূক্ত দেশগুলো নিজেদের এবং বিশ্বে অর্থনীতির স্বার্থে তেলের উৎপাদন কামানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’ কিন্তু তেল উৎপাদন কমানোর বিষয়ে সৌদি আরব এবং ইরানের মধ্যকার মতপার্থক্য ঐকমত্য বাস্তবায়ন নিয়ে সংশয় তৈরি করেছিল।

কারণ ইরান এ মুহূর্তে তেলের উৎপাদন কমাতে চায় না। অন্যদিকে তেলের উৎপাদন কমানোর ক্ষেত্রে সৌদি আরবও সিংহভাগ দায়িত্ব নিতে অনাগ্রহী। ইরান বলেছিল বহু বছর অর্থনৈতিক অবরোধ থাকার কারণে তাদের তেলের উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছায়নি। তবে শেষ পর্যন্ত তারা সবাই একটি সিদ্ধান্তে পৌঁছতে পেরেছে।

তবে ওপেকভূক্ত নয় এমন দেশগুলো শেষ পর্যন্ত তাদের উৎপাদন কতটা কমাবে তার উপর এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন নির্ভর করছে।

"