গ্রামে শাখা প্রতিষ্ঠায় উৎসাহী নয় বেসরকারি ব্যাংক

প্রকাশ : ০১ ডিসেম্বর ২০১৬, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক
ADVERTISEMENT

চলতি বছরের প্রথম ৯ মাসে বেসরকারী ব্যাংকগুলো সর্বমোট ১০৫টি নতুন শাখা খুলেছে। কিন্তু এর মধ্যে শহরে খুলেছে ৫৯টি, গ্রামে ৪৬টি। কেন্দ্রীয় ব্যাংক অনুমোদন না দিলে কোন ব্যাংক নতুন শাখা খুলতে পারে না। অর্থাৎ নতুন শাখা খোলার ক্ষেত্রে ব্যাংকগুলোতে যে অনিয়ম ঘটছে, সেটি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুমোদনসাপেক্ষেই।

জানা গেছে, এক সময় গ্রামের তুলনায় শহরে কয়েকগুণ বেশি শাখা খুলত বেসরকারী ব্যাংকগুলো। তবে ২০০৬ সালে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এক নির্দেশনায় বেসরকারী ব্যাংকের শহরাঞ্চলে চারটি শাখার বিপরীতে গ্রামাঞ্চলে অন্তত একটি শাখা খোলার নির্দেশনা দেয়া হয়। পরবর্তী সময়ে শহরে দুটি শাখার বিপরীতে গ্রামে একটি শাখা খুলতে বলা হয়। ২০১১ সালের ডিসেম্বরে অপর এক নির্দেশনার আলোকে গ্রাম-শহরে সমান শাখা খুলতে হচ্ছে। এছাড়া এখন বিভাগ ও জেলা শহরের পাশাপাশি সিটি কর্পোরেশন এবং পৌরসভা এলাকায় স্থাপিত শাখাকেও শহর শাখা হিসেবে গণ্য করা হচ্ছে। এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক শুভঙ্কর সাহা বলেন, গ্রামাঞ্চলে ব্যাংকের শাখা বাড়াতে একটি নীতিমালা রয়েছে। তবে ব্যাংকের ধরনভেদে এতে কিছুটা শৈথিল্যও রয়েছে। নতুন শাখা খোলার ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় ব্যাংক অনুমোদন দেয়। অনুমোদন দেয়ার আগে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের শহরে ও গ্রামে শাখার অনুপাত, ব্যবসা-বাণিজ্যের সম্ভাব্যতা, সম্ভাব্য সেবাগ্রহীতা, শাখা শহরে অবস্থিত হলেও ওই শাখার মাধ্যমে গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর সেবা গ্রহণের সম্ভাব্যতা ইত্যাদি বিষয় যাচাই-বাছাই করা হয়।

"