খাতভিত্তিক ট্রেড ইউনিয়নের পরিকল্পনা

প্রকাশ : ৩০ নভেম্বর ২০১৬, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক
ADVERTISEMENT

শ্রমিকদের সমস্যা নিয়ে আলোচনার সুযোগ বাড়াতে তাদের নিয়ে খাতভিত্তিক ট্রেড ইউনিয়ন করার সুযোগ দিতে চায় সরকার। গতকাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূত মিকাইল হেমনিটি উইনথারের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতের পর শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। তিনি বলেন, “পৃথিবীর অনেক দেশে সেক্টরভিত্তিক ট্রেড ইউনিয়ন আছে, আমাদের দেশে ফ্যাক্টরি টু ফ্যাক্টরি। এজন্য অনেক সময় কাজের প্রবলেম হয়। সেক্টরের যদি ট্রেড ইউনিয়ন থাকে তবে সেক্টরের দাবি-দাওয়া নিয়ে আলোচনা করার সুযোগ হয়।” এ বিষয়ে ডেনমার্কের অভিজ্ঞতা জানতে সম্প্রতি সে দেশ সফর করেন শ্রম মন্ত্রণালয়ের সচিব, যুগ্ম সচিবসহ কয়েকজন কর্মকর্তা। তারা ফিরে এসে একটি প্রতিবেদন দিয়েছেন বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

বর্তমানে দেশে একটি কারখানায় একটি ট্রেড ইউনিয়ন থাকার প্রসঙ্গে টেনে চুন্নু বলেন, “তারা শুধু ওই ইন্ডাস্ট্রির প্রবলেমের কথা বলছেন। কিন্তু ওই সেক্টরে তো ওভারঅল অনেক প্রবলেম আছে। সেক্টরভিত্তিক তো কেউ আলোচনা করার সুযোগ পাচ্ছে না। সেক্টরভিত্তিক যদি কিছু করা যায় আমার মনে হয় তা ভাল হবে।” সংবাদপত্রের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৪ সালে দেশে নিবন্ধিত ট্রেড ইউনিয়নের সংখ্যা ছিল প্রায় সাড়ে সাত হাজারের মত। এসব ট্রেড ইউনিয়নের সদস্য সংখ্যা ২৩ লাখের বেশি।

শ্রম প্রতিমন্ত্রী জানান, ডেনমার্কের সঙ্গে বাংলাদেশের ‘সোশাল ডায়ালগের’ একটি চুক্তি রয়েছে। বাংলাদেশে ট্রেড ইউনিয়ন জোরদার করার বিষয়েও ডেনমার্ক কারিগরি সহযেগিতা দিচ্ছে। “ফ্যাক্টরি পরিদর্শনে তাদের সিস্টেমটা কি তা জানলাম, আমাদের সিস্টেমটা তাদের বললাম। আমরা যদি অকুপেশন হেলথ অ্যান্ড সেফটি নিয়ে ট্রেইনিং সেন্টার করতে চাই ডেনমার্ক আমাদের টেকনিক্যালি হেল্প করতে পারবে বলে জানিয়েছে।” কারাখানার নিরাত্তার জন্য বাংলাদেশ কোনো উদ্যোগ নিলে তাতেও ডেনমার্ক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

"