নতুন পাক সেনাপ্রধান সম্পর্কে ভারতকে সতর্ক থাকার পরামর্শ

প্রকাশ : ২৮ নভেম্বর ২০১৬, ০০:০০

বিদেশ ডেস্ক
ADVERTISEMENT

পাকিস্তানের নতুন সেনাপ্রধান হিসেবে লেফটেন্যান্ট জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়ার নাম ঘোষণা করেছেন সেদেশের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ। গত শনিবার প্রধানমন্ত্রী তার দফতরে কামার জাভেদ বাজওয়ার সঙ্গে এ ব্যাপারে বৈঠক করেন। ১ ডিসেম্বর থেকে পাকিস্তানের সেনাপ্রধান হিসেবে দায়িত্ব নিতে চলেছেন তিনি।

এদিকে, পাকিস্তানের নতুন সেনাপ্রধান হিসেবে লেফটেন্যান্ট জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়ার সম্পর্কে সতর্ক থাকতে ভারতকে সতর্ক করা হয়েছে। সতর্ক করেছেন প্রাক্তন ভারতীয় সেনাপ্রধান জেনারেল বিক্রম সিংহ। লেফটেন্যান্ট জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া ভারতের প্রাক্তন সেনাপ্রধান জেনারেল বিক্রম সিংহের অধীনে বেশ কিছু দিন কাজ করেছেন। সেই অভিজ্ঞতা থেকে জেনারেল বিক্রম সিংহের মন্তব্য, পাকিস্তানের হবু সেনাপ্রধান বেশ ‘অমায়িক’ এবং ‘অত্যন্ত পেশাদার’। কিন্তু বিক্রম সিংহের সতর্কবার্তা, পাকিস্তানের স্বার্থ রক্ষার দায়িত্ব যখন বাজওয়ার কাঁধে বর্তাতে চলেছে, তখন আচরণে বদল অস্বাভাবিক নয়। সে কথা মাথায় রেখে বাজওয়ার ‘পেশাদারিত্ব’ সম্পর্কে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন জেনারেল সিংহ।

ভারতের বর্তমান সেনাপ্রধান জেনারেল দলবীর সিংহ সুহাগ যাঁর হাত থেকে দায়িত্ব নিয়েছিলেন, তিনিই হলেন জেনারেল বিক্রম সিংহ। এই বিক্রম সিংহের অধীনেই খুব গুরুত্বপূর্ণ এক অভিযানে কাজ করেছেন পাকিস্তানের হবু সেনাপ্রধান। মধ্য আফ্রিকার কঙ্গোতে দীর্ঘ রক্তক্ষয়ী গৃহযুদ্ধ থামানোর জন্য জাতিসংঘের যে শান্তি অভিযান, তাতে এক সময় অংশ নিতে হয়েছিল বিক্রম সিংহকে। জাতিসংঘ প্রেরিত বহুজাতিক শান্তি বাহিনীর ইস্টার্ন ডিভিশনের জেনারেল অফিসার কম্যান্ডিং (জিওসি) পদে ছিলেন জেনারেল বিক্রম সিংহ। পাক সেনার অফিসার কামার জাভেদ বাজওয়া সে সময় বিক্রম সিংহের অধীনস্থ একটি ব্রিগেডের কম্যান্ডার ছিলেন। ভারতের প্রাক্তন সেনাপ্রধান সেই সময়ের কথা তুলে ধরে জানিয়েছেন, কামার জাভেদ বাজওয়া এক জন ‘অত্যন্ত পেশাদার’ ব্যক্তি। বাজওয়া তাঁর অধীনে ‘অসামান্য দক্ষতা’র সঙ্গে কাজ করেছিলেন বলেও জেনারেল বিক্রম সিংহ সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন।

কামার জাভেদ বাজওয়া এক জন ‘অমায়িক’ মানুষ বলেও জেনারেল বিক্রম সিংহের মত। কিন্তু এর পাশাপাশি অবসরপ্রাপ্ত ভারতীয় সেনাপ্রধানের ব্যাখ্যা, কোনও আন্তর্জাতিক মিশনে যখন কোনও সৈনিক কাজ করেন, তখন তাঁর মানসিকতা যে রকম হয়, দেশের হয়ে কাজ করার সময় তেমনটা নাও হতে পারে। কামার জাভেদ বাজওয়া পাকিস্তানের সেনাপ্রধান পদে বসার পর তিনি পাকিস্তানের জাতীয় স্বার্থের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হবেন। তাই জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া সম্পর্কে ভারতকে সতর্ক থাকতে হবে, মনে করছেন বিক্রম সিংহ। বাজওয়ার অসামান্য পেশাদারিত্বের কারণেই তিনি অন্য পাক সেনাপ্রধানদের চেয়ে আলাদা, অনেকটা এমনই ইঙ্গিত জেনারেল বিক্রম সিংহের।

পাকিস্তানের বর্তমান সেনাপ্রধান জেনারেল রাহিল শরিফ অবসর নিচ্ছেন ৩০ নভেম্বর। অর্থাৎ পুরোদস্তুর সেনাপ্রধান হিসেবে কামার জাভেদ বাজওয়া কাজ শুরু করবেন ১ ডিসেম্বর থেকে। কিন্তু সেনার শীর্ষ পদ হস্তান্তরিত হয় যে আনুষ্ঠানিক কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে, তা আয়োজিত হচ্ছে ২৯ নভেম্বর। রাওয়ালপিন্ডিতে পাক সেনার সদর দফতরে ওই দিন আনুষ্ঠানিক ভাবে বাজওয়ার হাতে দায়িত্ব তুলে দেবেন রাহিল শরিফ।

"