কাশ্মীর সমস্যা নিয়ে আলোচনায় যেতে চায় না ভারত

প্রকাশ : ১৩ আগস্ট ২০১৬, ০০:০০

বিদেশ ডেস্ক
ADVERTISEMENT

ভারত-নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের চলমান অচলাবস্থা নিয়ে পাকিসাতানের সঙ্গে সংলাপের সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছেন দেশটির কেন্দ্রিয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, কাশ্মির সমস্যায় পাকিস্তানকে আবারও সরাসরি দায়ী করেছেন তিনি। পাকিস্তান কাশ্মীরের একাংশ দখল করে দেখেছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

উল্লেখ্য, ৮ জুলাই অনন্তনাগের কোকেরনাগ এলাকায় সেনা ও পুলিশের বিশেষ বাহিনীর যৌথ অভিযানে হিজবুল কমান্ডার বুরহান ওয়ানিসহ তিন হিজবুল যোদ্ধা নিহত হন। বুরহানের নিহতের খবর ছড়িয়ে পড়লে কাশ্মীর জুড়ে উত্তেজনা বাড়তে থাকে। বিক্ষুব্ধ কাশ্মীরিদের দাবি, বুরহানকে ‘ভুয়া এনকাউন্টারে’ হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে প্রথমে পুলওয়ামা ও শ্রীনগরের কিছু অঞ্চলে কারফিউ জারি করা হয়। পরবর্তীতে বিক্ষোভের মাত্রা বেড়ে গেলে কাশ্মীরের দশটি জেলা, এমনকি দূরবর্তী গ্রামেও কারফিউ জারি করা হয়। সেই থেকে আজও পর্যন্ত কাশ্মীরে অচলাবস্থা বিরাজ করছে। চলমান সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা অর্ধশত ছাড়িয়েছে।

কাশ্মীরের এই অবস্থার জন্য রাজনাথ আঙ্গুল তুলেছেন পাকিস্তানের দিকেই। রাজ্যসভায় দেওয়া বক্তৃতায় বুধবার তিনি বলেন, ‘কাশ্মীরে যা হচ্ছে, তা পাকিস্তানের ইন্ধনেই হচ্ছে।’

কাশ্মীরের বিভিন্ন দলের সঙ্গে কথা বললেও পাকিস্তানের সঙ্গে কথা বলতে নারাজ রাজনাথ সিং। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘পাকিস্তানের সঙ্গে যদি আলোচনা হয়, তবে তা কাশ্মীর সম্পর্কিত হবে না। তা হবে পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের বিষয়ে।’

তিনি কাশ্মীরকে ভারতের ‘অবিচ্ছেদ্য’ অংশ বলে উল্লেখ করে বলেন, ‘বিশ্বের কোনও শক্তি কাশ্মীরকে আমাদের কাছ থেকে কেড়ে নিতে পারবে না।’

এর পূর্বে কাশ্মীরে বিরাজমান সংকট প্রসঙ্গে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ মুজাফফরাবাদের জনসভায় বলেন, ‘কাশ্মীরে যারা স্বাধীনতা সংগ্রামের জন্য আত্মত্যাগ করেছে তাদের ভুললে চলবে না। আমাদের সমস্ত প্রার্থনা তাদের সঙ্গে আছে। আমরা ওই দিনের অপেক্ষায় আছি, যেদিন কাশ্মীর পাকিস্তানের অংশ হবে।’

পাকিস্তানের এই আশাকে ‘বিপজ্জনক ভ্রম’ বলে উল্লেখ করেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। কাশ্মীরকে ভারত তার অবিচ্ছেদ্য অংশ বলে দাবি করে বলে কাশ্মীরের সমস্যা সমাধানে আগ্রহী নয় দেশটি।

১৯৪৭ সালে ব্রিটিশ শাসন থেকে মুক্ত হওয়ার পর ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে ২ বার যুদ্ধ হয় কাশ্মীরকে কেন্দ্র করেই। বর্তমানে কাশ্মীর এলাকা ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে বিভক্ত হয়ে আছে এবং এর একটি ক্ষুদ্র এলাকা চীনের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

"