মাংস রান্নায় যে ৫ ভুল করছেন আপনি

প্রকাশ : ২৬ নভেম্বর ২০১৬, ১৫:২৮

অনলাইন ডেস্ক
ADVERTISEMENT

হঠাত্ ফুড পয়জনিং৷ কিন্তু বাইরের খাবার বেশি খান না৷ তাহলে? শেষ বাড়িতে রান্না করা চিকেন খেয়েছিলেন৷ অনেক সময় বাড়ির মাংস রান্নায়ও অনেক ভুল হয়ে যায়৷ আপনি ঠিকভাবে মাংস রান্না করছেন তো? মিলিয়ে নিন

ভুল ১- সঠিক তাপমাত্রায় রান্না না করা

অনেক সময় বেশি তাপমাত্রায় রান্না করলে যদি মাংস পুড়ে যায় সেই ভয়ে আমরা কম তাপমাত্রায় রান্না করে থাকি৷ এমনটা প্রত্যেকের সঙ্গেই ঘটে থাকে৷ বিশেষত এই ভুল মাইক্রোওয়েভে রান্নার ক্ষেত্রে বেশি হয়ে থাকে৷ কিন্তু সঠিক তাপমাত্রায় রান্না না করলে মাংসের মধ্যে থাকা জীবাণু ধ্বংস হয় না৷ ফলে তা খাদ্যের মাধ্যমে দেহে গিয়ে আমাদের অসুস্থ করে তোলে৷

ভুল ২- স্লো-কুকারে হিমায়িত মাংস দেওয়া

ভীষণ ব্যস্ততার মধ্যে ক্রকপট সত্যিই প্রযুক্তির আশীর্বাদ স্বরূপ৷ রান্নার জন্য স্লো-কুকারে মাংস ও মশলা দিয়েই আমরা নিশ্চিন্ত হয়ে যাই৷ কিন্তু তাড়াহুড়োর চোটে রেফ্রিজারেটর থেকে মাংস বের করেই ক্রকপটে দিয়ে দেওয়া অত্যন্ত ভুল কাজ৷ এক্ষেত্রে স্বাভাবিক তাপমাত্রায় এলে তবেই তা স্লো-কুকারে দিন৷ তাড়াহুড়োর জন্য সুস্থ শরীরকে ব্যস্ত করার কোনও মানেই হয় না৷

ভুল ৩- পরিষ্কার না করা

বাজার থেকে মাংস কিনে আনার পরই তা ভালো করে ধুয়ে পরিষ্কার পাত্রে রেখে রেফ্রিজারেট করুন৷ দোকানি আপনাকে কীরকম হাতে মুরগী কেটে দিচ্ছেন তা তো আপনার অজানা৷ ফলে নিজে পরিষ্কার থাকুন৷ মাংস রান্নার সময়ও পরিষ্কার ভাবে রান্না করুন৷ তাহলেই রোগজীবাণু ছড়াবার কোনও ব্যাপার থাকে না৷

ভুল ৪- অনেকক্ষণ ফ্রিজের বাইরে রাখা

মাংস কখনও এক ঘণ্টার বেশি ফ্রিজের বাইরে রাখবেন না৷ তাহলে এতে রোগজীবাণু বাসা বাঁধে৷ তাছাড়া ধুলোবালিও পড়তে পারে৷ ফলে চিকেন প্রিপারেশনটি খারাপ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে৷

ভুল ৫- ঠাণ্ডা মাংস খাওয়া

ফ্রিজ থেকে বের করে কিছুক্ষণ বাইরে রেখে স্বাভাবিক তাপমাত্রায় এলে পরিবেশন করছেন? ভুল ভুল! ফ্রিজ থেকে বের করে পরিবেশনের সময় ১৪০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় গরম করে নিতে হবে৷ নাহলে ফুড পয়জনিং-এর মতো সমস্যা হতেই পারে৷