সুস্থ থাকতে লাঞ্চ ব্রেকে যা করবেন

প্রকাশ | ১২ আগস্ট ২০১৬, ১৩:৩০

অনলাইন ডেস্ক

ঘুম থেকে উঠেই একটু কাকভেজা স্নান আর চটজলদি দু’মুঠো খাবার! তার পরেই পড়ি কি মরি করে সোজা অফিস। সারা দিনের খাটুনির পর বাড়ি ফিরেই সোজা বিছানায় ডাইভ। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নিজের জন্য আলাদা কোনও সময় আর বেঁচে থাকে না। কিন্তু জানেন কি দীর্ঘ দিন ধরে একঘেয়ে, বিরক্তিকর এই কাজ করতে করতে মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়তে পারেন আপনি। তাই বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সুস্থ থাকতে অফিসের লাঞ্চ ব্রেক আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। শরীর মন চাঙ্গা রাখতে লাঞ্চ ব্রেকে কী করবেন আর কী করবেন না, প্ল্যান করুন আগে থেকেই।

১.বাইরে যান: কাজের যতই চাপ থাক, ডেস্কে বসে লাঞ্চ করবেন না। অল্প সময়ের জন্য হলেও অফিস চৌহদ্দির বাইরে যান। এতে অনেক রিল্যাক্স আর রিফ্রেশড থাকতে পারবেন আপনি।

২.মিউজিক্যাল মেডিটেশন: চেষ্টা করুন অফিসে কিছুটা সময় গান শুনে কাটাতে। গান ওয়ার্ক প্রেসার কমায়। পাশাপাশি স্ট্রেস কমাতেও তুলনা নেই মিউজিকের।

৩.শরীরচর্চা: পারলে কিছুটা সময় কাটান অফিসের জিমে। অফিসে দীর্ঘ ক্ষণ বসে কাজ করার ফলে পেশী এবং হাড়ে ব্যথা হতে পারে। ওয়েটও বাড়ে। তাই লাঞ্চ ব্রেকে হাল্কা শরীরচর্চা করা যেতেই পারে। করা যেতে পারে যোগও। আর জায়গার অভাব হলে অন্তত ১০-১৫ মিনিট হাঁটুন। এতেও উপকার পাবেন।

৪.উইকলি রিভিউ: সপ্তাহে অন্তত একটা দিন লাঞ্চ ব্রেকে চেষ্টা করুন পুরো কাজের উইকলি রিভিউ নিতে। এতে আপনার কাজের মান উন্নত হবে।

৫.গল্প করুন: কাজের কথা ভুলে লাঞ্চ ব্রেকে বন্ধুদের সঙ্গে দেদার আড্ডা মারুন। টিফিন শেয়ার করুন। গান করুন। মন হাল্কা হবে। কাজে মনও বসবে।

৬.হেলদি খাবার: টিফিনের খাবার খুবই গুরুত্বপূর্ণ। চেষ্টা করুন এই সময় বেশি তেল, ঝাল, মশলাযুক্ত খাবার এড়িয়ে চলতে। এতে হজমের সমস্যা হতে পারে। কাজের ইচ্ছা চলে যেতে পারে।

৭.ঘুম: পর্যাপ্ত সময় পেলে লাঞ্চ ব্রেকে ছোট্ট একটা ন্যাপ দিয়ে নিন। কাজের ফাঁকে শরীরকে পুনরায় চার্জড আপ করতে ঘুমের তুলনা হয় না।

৮.ইচ্ছা মতো চলুন: এই সময়টুকু পুরোটাই আপনার। তাই তাকে পুরোপুরি উপভোগ করুন। বই পড়তে ভালবাসলে বই পড়ুন। ইচ্ছা হলে লোকাল মার্কেট থেকে টুকিটাকি জিনিস শপিংও করতে পারেন। শখ থাকলে ডায়েরি লিখুন। মোট কথা সময়টুকু নিজের মতো করে উদযাপন করুন।