ছেলেকে খুন করতে কিলার ভাড়া করলেন বাবা

প্রকাশ : ১১ আগস্ট ২০১৬, ১৩:৪৬ | আপডেট : ১১ আগস্ট ২০১৬, ১৩:৫৮

অনলাইন ডেস্ক
ADVERTISEMENT

তরুণ ছেলের মদ্যপান, জুয়া খেলা, মেয়েদের টিটকিরি দেয়াসহ নানা দোষ ছিল। বাড়িতেও অশান্তি আর বাপ-মাকে মারধর করতেন তিনি। পাড়ায় অপমানিত হতেন বাবা। সেই রাগেই ‘বখাটে’ ছেলেকে খুন করাতে বাবা ভাড়া করেছিলেন দুই দুষ্কৃতিকে।

পশ্চিমবঙ্গের পুলিশ প্রথমে ওই হত্যার কিনারা করে উঠতে পারছিল না। তবে শেষমেশ ওই দুই দুষ্কৃতি ধরা পড়েন পুলিশের জালে। তাদের কাছ থেকেই জানা যায়—কে ভাড়া করেছিল তাদের।

পূর্ব মেদিনীপুরের পুলিশ অবশেষে গ্রেপ্তার করেছেন খুন হয়ে যাওয়া ওই তরুণের বাবাকে। জেলার পুলিশ সুপারিন্টেডেন্ট অলোক রাজোরিয়া বলেন, ছেলেকে ভাড়াটে খুনি দিয়ে হত্যা করানোর অভিযোগে অশোক দ্বিবেদী নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি দোষ স্বীকার করেছেন।

কাঁথির আদালত অশোক দ্বিবেদীকে ৫ দিনের পুলিশী হেফাজতে পাঠিয়েছে। পুলিশ বলছে, পশ্চিম মেদিনীপুরের বাসিন্দা অশোক দ্বিবেদীর ২৮ বছরের ছেলে অনিমেষের দেহ পাওয়া যায় পাশের জেলা পূর্ব মেদিনীপুরে, গত ৬ মার্চ। একটা ধানক্ষেতে গলা কাটা অবস্থায় পাওয়া যায় দেহটি।

এ মাসের গোড়ায় প্রথমে জয়দেব মাইতি নামে এক তরুণকে, আর তাকে জেরা করে দেবদুলাল মাইতি নামে দ্বিতীয় এক তরুণকে গ্রেপ্তার করা হয়। এদের জেরা করেই জানা যায়—মৃতের বাবা অশোক দ্বিবেদীই অনিমেষকে খুন করতে এক লক্ষ টাকা দিয়ে ভাড়া করেছিলেন ওই দুজনকে। সূত্র: বিবিসি