৭ মিনিটেই 'স্লিম অ্যান্ড ফিট'

প্রকাশ : ২৮ নভেম্বর ২০১৬, ১১:৩৬ | আপডেট : ২৮ নভেম্বর ২০১৬, ১১:৩৯

অনলাইন ডেস্ক
ADVERTISEMENT

আপনার কি দীর্ঘ সময় অফিসে বসে কাটে? প্রতিদিনের ব্যস্ত শিডিউলের শেষে নিজেকে খুব আনফিট মনে হয়? জেনে রাখুন, রোজ মাত্র ৭ মিনিটের বিনিময়ে পেতে পারেন নীরোগ ফিট শরীর।

ধরা যাক, একসময় নিয়মিত দেহচর্চা করতেন। প্রতিদিন জিমে বেশ কয়েক ঘণ্টা না কাটালে মেজাজ খিঁচড়ে যেত। ভোরবেলা জগিং, স্প্রিন্ট নিদেন হাঁটাহাঁটি না করলে দিনটাই মাটি মনে হত। কিন্তু কর্মজীবনে প্রবেশের পর সেই অভ্যাসে ইতি টানতে হয়েছে। অথবা ধরে নেওয়া যাক, রোজ অফিসে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কাজ করে বা দিনভর ব্যস্ততায় কাটানোর পর শরীরের নানান জায়গায় ব্যথা, আড়ষ্টতা মা অস্বস্তি অনুভব করছেন। চিকিত্‍সক বলছেন রোজ ব্যায়াম করতে, অথচ কিছুতেই টানটান শিডিউলের মাঝে সময় বের করতে পারছেন না। এমন পরিস্থিতিতে শরীর ফিট রাখার নয়া টোটকা তৈরি করেছেন ফিটনেস বিশারদরা।

তাদের মতে, প্রতিদিন মাত্র সাত মিনিট খরচ করতে পারলেই সুস্থ ফিট শরীরের অধিকারী হওয়া সম্ভব। ওই ৭ মিনিটে মোট ১২ রকমের হাল্কা ব্যায়াম করলে দেহের কলকব্জায় মরচে ধরে না, সহজেই প্রাণচঞ্চল হয়ে ওঠা যায়। নগরজীবনে হাঁসফাঁস মানুষের জন্য ফিটনেস বিশেষজ্ঞ ব্রেট কিলকা এবং ক্রিস জর্ডন ছকে ফেলেছেন স্বল্প মেয়াদী ওয়ার্কআউট সেশন যা আপনাকে ফিট রাখতে সক্ষম। ব্যায়ামগুলি অত্যন্ত সহজ এবং তার জন্য কোনও যন্ত্রপাতিরও প্রয়োজন হয় না।


সেলিব্রিটি ফিটনেস ট্রেনার ডোনোভান গ্রিন জানিয়েছেন, 'আপনি যদি সদ্য ব্যায়াম করা শুরু করে থাকেন অথবা দীর্ঘ কাল পর শরীরচর্চা আরম্ভ করার পরিকল্পনা করেন, সে ক্ষেত্রে এই সাত মিনিটের ওয়ার্কআউট অব্যর্থ। ব্যস্ত মানুষ থেকে অলস জীবনযাত্রায় অভ্যস্তদের পক্ষে এই ব্যামগুলি সহজসাধ্য এবং অত্যন্ত উপকারী। এগুলি বাড়িতে অথবা অফিসে অনায়াসে অভ্যাস করা যায়।' গ্রিনের দাবি, সামান্য সময়ের মধ্যে এই ব্যায়ামগুলি শরীরের প্রতিটি অংশ ফিট রাখতে সাহায্য করে।

কী ভাবে করতে হবে 'সেভেন মিনিটস ওয়ার্কআউট'?

কিলকা ও জর্ডন জানিয়েছেন, মূলত শরীরের ওজন কাজে লাগিয়ে দ্রুত কয়েকটি ব্যায়ামের মাধ্যমে ফিটনেস গড়ে তোলা সম্ভব।ব্যায়ামের তালিকায় রয়েছে জাম্পিং জ্যাকস, পুশ-আপে, অ্যাবডোমিনাল ক্রাঞ্চেস, চেয়ার স্টেপ-আপস, স্কোয়্যাটস, ট্রাইসেপস ডিপ অন চেয়ার প্ল্যাঙ্কস, হাই নিস রানিং ইন প্লেস, পুশ-আপ অ্যান্ড রোটেশনস এবং সাইড প্ল্যাঙ্কস। প্রতিটি ব্যায়াম ৩০ সেকেন্ড ধরে ১ থেকে ১০ বার করতে হবে। দু'টি ব্যায়ামের মাঝে নিতে হবে ১০ সেকেন্ডের বিরতি। তবে ব্যায়ামগুলি নির্দিষ্ট ক্রমপর্যায়ে করতে হবে, না হলে ফল মিলবে না।