গোসল করতে চাইতেন না কঙ্গনা!

প্রকাশ : ১২ আগস্ট ২০১৬, ১৫:২১ | আপডেট : ১২ আগস্ট ২০১৬, ১৫:২৪

অনলাইন ডেস্ক
ADVERTISEMENT

দৈহিক স্বাস্থ্যের দিকে মনোযোগী হওয়ার পর থেকে বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রনৌতের জীবনে ইতিবাচক পরিবর্তন এসেছে। ‘তনু ওয়েডস মনু রিটার্নস’ তারকা জানান, একসময় তিনি প্রচন্ড অলস ছিলেন। এ কারণে গোসল করতেও বিরক্তবোধ করতেন!

এ প্রসঙ্গে কঙ্গনা বলেছেন, ‘আমি সত্যিই অলস ছিলাম আর গোসল করতে মোটেও ভালো লাগতো না। আমার মা-বাবা তো হয়রান হয়ে যেতেন বলে বলে। সত্যি বলতে জীবনের ওই অধ্যায়ে কোনো ইতিবাচক কিছুই হয়নি আমার বেলায়। কাউকে বন্ধু করতাম না, আমার পথে আসার সুযোগ ছিলো না।’

এরপর শাস্ত্রীয় তত্ত্ব, প্রবন্ধ ও কর্মশক্তি সম্পর্কে প্রচুর পড়েছেন কঙ্গনা। ২৯ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী করে বলেন, ‘কর্মশক্তির তিনটি ধরণ সম্পর্কে জেনেছি। এর মধ্যে একটি হলো পরিচ্ছন্নতা। এটাই সবচেয়ে উচ্চতর। এটাই সত্যি।’

স্বচ্ছ ভারত অভিযানে ‘ডোন্ট লেট হার গো’ নামের একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবিতে অভিনয় করেছেন কঙ্গনা। এর উদ্বোধনী প্রদর্শনীর অনুষ্ঠানে এসব কথা জানান ‘কৃষ থ্রি’ তারকা। এতে দেবী লক্ষ্মীর ভূমিকায় দেখা যাচ্ছে তাকে। প্রদীপ সরকার পরিচালিত স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবিটিতে আরও আছেন ইশা কোপিকার ও ওমকার কাপুর। এতে ধারাবর্ণনা দিয়েছেন অমিতাভ বচ্চন।

এসব কৌশল অবলম্বনের পর ফলে নিজের জীবন বদলে গেছে বলেও জানান ‘কুইন’ অভিনেত্রী। তিনি বলেন, ‘আমি বেদ পড়েছি এবং স্বামী বিবেকানন্দকে অনুসরণ করেছি। নিজের উন্নতি কীভাবে ঘটাতে হয় তা শিখেছি। কর্মশক্তির উন্নয়ন করে পরিবর্তন এনেছি। এটা বাহ্যিক ও অভ্যন্তরীণ পরিচ্ছন্নতার মতো বিভিন্ন বিষয়। শুরু করেছি বাহ্যিক পরিচ্ছন্নতা দিয়ে। এটা মৌলিক ব্যায়াম। এটা গ্রহণের পর পর থেকে আমার জীবনে পরিবর্তন আসতে শুরু করে। এখন আমি গোসল করি, পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন থাকি এবং কোনোভাবেই এলোমেলো থাকি না। এক যুগ ধরে আমি নোংরা সবকিছু এড়িয়ে চলি।’