সৌদি দূতাবাসে আরো জনবল বৃদ্ধি করা হবে : নুরুল ইসলাম বিএসসি

প্রকাশ : ০১ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৬:৩৩

অনলাইন ডেস্ক
ADVERTISEMENT

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি জানিয়েছেন, বাংলাদেশে সৌদি দূতাবাসে আরো জনবল বৃদ্ধি করে দ্রুত ভিসা ইস্যু করতে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় রাজধানীর ইস্কাটনে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রীর কক্ষে সৌদি রাষ্ট্রদূত আব্দুল্লাহ এইচ এম আল মোতাইরির সৌজন্য সাক্ষাতের সময় তিনি এ কথা বলেন।
 
নুরুল ইসলাম বিএসসি বলেন, দুদেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক সবসময় ভাল ছিল এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। বাংলাদেশ থেকে সব সেক্টরে কর্মী নেওয়া শুরু হওয়ায় রাষ্ট্রদূতের মাধ্যমে সৌদি সরকারকে ধন্যবাদ জানান মন্ত্রী।
 
সাক্ষাৎকালে মন্ত্রী বাংলাদেশ থেকে দক্ষ ও আধাদক্ষ কর্মী নেওয়ার জন্য প্রশংসা ও ধন্যবাদ জানান। তিনি বাংলাদেশ থেকে আরও ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ারসহ দক্ষ কর্মী নেওয়ার জন্য রাষ্ট্রদূতকে অনুরোধ জানান। 
 
এছাড়া সাক্ষাৎকালে সৌদি আরবে বাংলাদেশি কর্মী নিয়োগ এবং সাম্প্রতিক ভিসা ইস্যু বিলম্বসহ অন্যান্য বিষয়ে রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে আলোচনা হয়। ভিসা ইস্যু বিলম্ব ও ভিসা ট্রেডিং বন্ধের বিষয়েও বিস্তারিত আলোচনা হয়।
 
সেখানে জানানো হয়, বাংলাদেশে সৌদি দূতাবাসে আরো জনবল বৃদ্ধি করে দ্রুত ভিসা ইস্যুকরণে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। যে সব রিক্রুটিং এজেন্সি ভিসা ট্রেডিংয়ের সঙ্গে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার ব্যাপারেও আলোচনা হয়।
 
ভিসা ট্রেডিং পুরোপুরি বন্ধ হলে সরকার নির্ধারিত অভিবাসন ব্যয়ে কর্মীরা সৌদি আরবে যেতে পারবে। এছাড়াও গামকা কর্তৃক স্বাস্থ্য পরীক্ষায় বিলম্ব ও হয়রানির বিষয়ে আলোচনা হয়।
 
সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত জানান, খুব শিগগির গামকার সঙ্গে বৈঠক করে সমস্যা সমাধানে উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।
 
১৯৭৬ সাল থেকে বাংলাদেশি কর্মী সৌদি আরবে যাচ্ছে। বর্তমানে প্রায় ২০ লক্ষাধিক বাংলাদেশি কর্মী সৌদি আরবে বিভিন্ন সেক্টরে কর্মরত আছেন।
 
সাক্ষাৎকালে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব বেগম শামছুন নাহার, অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ আজহারুল হক, জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক মো. সেলিম রেজা, ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক গাজী মোহাম্মদ জুলহাস, এনডিসি, সৌদি আরবের চিফ অফ কনসুলেট ডিভিশনের কাউন্সেলর খালিদ বকস্  উপস্থিত ছিলেন।